আতঙ্কের ঝড় তুলেছে ওমিক্রন, ৫ দফা নির্দেশিকা কেন্দ্রের

আতঙ্কের ঝড় তুলেছে ওমিক্রন, ৫ দফা নির্দেশিকা কেন্দ্রের

নিজস্ব প্রতিবেদন : করোনা সংক্রমণ নিয়ে মাস খানেক স্বস্তির মুখ দেখতে না দেখতেই ফের অস্বস্তি। এবার অস্বস্তি নিয়ে হাজির করোনার নতুন স্ট্রেন ওমিক্রণ। নতুন এই স্ট্রেন ডেল্টা প্লাস অথবা অন্যান্য স্ট্রেনের তুলনায় অনেক বেশি সংক্রামক। যে কারণে ঝড়ের গতিতে প্রতিদিন বেড়ে চলেছে আক্রান্তের সংখ্যা। দ্বিগুণ-তিনগুণ আকারে বৃদ্ধি পাচ্ছে এই আক্রান্তের সংখ্যা।

দেশের যে সকল রাজ্যের বেশকিছু শহরে এই আক্রান্তের সংখ্যা ঝড়ের গতিতে বৃদ্ধি পাচ্ছে সেই সকল শহরের মধ্যে রয়েছে মুম্বই, দিল্লি, কলকাতা সহ আরও গুরুত্বপূর্ণ কয়েকটি শহর। পরিস্থিতি এতটাই ভয়ঙ্কর হয়ে দাঁড়িয়েছে যে তার তৃতীয় ঢেউকে অবশ্যম্ভাবী করে দিয়েছে। এমন পরিস্থিতিতে কেন্দ্র সরকারের তরফ থেকে রাজ্যগুলিকে ৫ দফা নির্দেশিকা দিলো। এই নির্দেশিকা ফের একবার পাঠানো হয়েছে শনিবার।

কেন্দ্রের পক্ষ থেকে রাজ্যগুলিকে দেওয়া এই পাঁচ দফা নির্দেশিকায় বলা হয়েছে, অস্থায়ী করোনা হাসপাতাল তৈরি করার দিকে জোর দিতে হবে। পাশাপাশি যে সকল করোনা হাসপাতাল রয়েছে সেই সকল হাসপাতলে বেডের সংখ্যা বৃদ্ধি করার দিকে জোর দেওয়ার কথা বলা হয়েছে। সে ক্ষেত্রে সরকারি এবং বেসরকারি হাসপাতালের কাছাকাছি থাকা হোটেলগুলিকে কাজে লাগানোর কথা বলা হয়েছে। এর পাশাপাশি প্রতিটি জেলায় কন্ট্রোল রুম তৈরি করে পরিস্থিতির দিকে নজর রাখতে হবে।

যারা করোনা আক্রান্ত হওয়ার পর আইসোলেশনে রয়েছেন তাদের উপর নজর রাখার কথা বলা হয়েছে। প্রয়োজনে রোগীদের হাসপাতালে ভর্তি করার কথা বলা হয়েছে। স্বাস্থ্য পরিকাঠামোর উপর নজর রাখতে বাড়তি জোর দেওয়ার কথা বলা হয়েছে। অক্সিজেন এবং ওষুধের জন্য পর্যাপ্ত ব্যবস্থা থাকে সেই নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। যে সমস্ত স্বাস্থ্যকর্মী অথবা প্রথম সারির যোদ্ধারা করোনা সংক্রমণ ঠেকাতে লড়াই করছেন তাদের প্রয়োজনমতো আইসোলেশনে পাঠানোর কথা বলা হয়েছে।

আইসোলেশনে থাকা ব্যক্তিরা যাতে সমস্ত রকম সুবিধা পান সেই দিকে নজর রাখতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। ওই সমস্ত আক্রান্ত ব্যক্তিরা কেমন থাকছেন, কি কি অসুবিধায় পড়ছেন সব নজর রাখতে হবে। অসুবিধা বাড়লে যাতে সমস্ত রকম সুবিধা পান সেদিকে নজর রাখতে হবে।

আরো পড়ুন