আদিবাসী এক যুবকের জিভ কেটে নেওয়ার অভিযোগ

আদিবাসী এক যুবকের জিভ কেটে নেওয়ার অভিযোগ

আদিবাসী এক যুবকের জিভ কেটে নেওয়ার অভিযোগ উঠলো এক মহিলার বিরুদ্ধে। ঘটনাটি ঘটেছে বীরভূমের শান্তিনিকেতনের ফুল ডাঙ্গা আদিবাসী পাড়ায়। কিন্তু কেন এমন ভয়ঙ্কর ঘটনা ঘটলো?

জানা গিয়েছে, সমাই সরেন নামে বছর কুড়ির এক যুবক তার বন্ধুর সঙ্গে গতকাল রাতে মদ খেতে যায় পাকু সরেন নামে এক মহিলার বাড়িতে। সেখানেই মদ খাওয়া অবস্থায় সমাই সরেনের বন্ধু বাইরে গেলে পাকু সরেন তার ওপর চড়াও হয় এবং মুখ দিয়েই তার জিভ কেটে নেয়। এরপর সম্পূর্ণটাই রহস্যমণ্ডিত।

স্থানীয় বাসিন্দাদের অভিযোগ, তন্ত্র সাধনার সঙ্গে যুক্ত ওই বৃদ্ধা মহিলা। আবার স্থানীয় বাসিন্দাদের অনেকেই এই ঘটনার কারণ হিসেবে কোনো কিছু জানাতে পারেননি। এমনকি কোনো রকম কোনো বিবাদ ছিল না বলেও জানা যাচ্ছে।

তবে অভিযুক্ত ওই বৃদ্ধা এই ঘটনাকে সম্পূর্ণ অস্বীকার করেছেন এবং তিনি জানিয়েছেন তিনি ওই যুবকের জিভ কাটেননি। তার দাবি, মদ খেয়ে গালিগালাজ করছিল সেই সময় আমি ওকে বেরিয়ে যেতে বলি। কিন্তু আমি ওই যুবকের জিভ কাটিনি।

ঘটনার পর ওই যুবককে বোলপুর সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালে পাঠানো হয় চিকিৎসার জন্য। পরে তাকে বর্ধমান রেফার করা হয়। যদিও আর্থিক অভাব-অনটনের কারণে ওই যুবককে ফিরিয়ে আনা হয় বাড়িতে

আরো পড়ুন