‘আমি চুরিও করি নাই, ডাকাতিও করি নাই, মহাদেবের ভক্ত’, অনুব্রত মণ্ডল

‘আমি চুরিও করি নাই, ডাকাতিও করি নাই, মহাদেবের ভক্ত’, অনুব্রত মণ্ডল

নিজস্ব প্রতিবেদন : দীর্ঘদিন পর অবশেষে মঙ্গলবার মুখ খুললেন বীরভূম জেলা তৃণমূল সভাপতি অনুব্রত মণ্ডল। কয়লা পাচার কান্ড, গরু পাচার কান্ড, ভোট পরবর্তী হিংসার মতো একাধিক মামলায় বারংবার সিবিআইয়ের তলব পেয়েছেন বীরভূমের এই দাপুটে তৃণমূল নেতা। বারংবার তিনি এই তলব পাওয়ার পরই অসুস্থ হয়ে পড়েন। তারপর থেকেই এক প্রকার মৌনব্রত ছিলেন তিনি।

বারংবার সিবিআই তলব পাওয়ার পর অসুস্থ হয়ে এসএসকেএম হাসপাতালে ভর্তি হওয়ার পর সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরে এলেও তাকে একপ্রকার সংবাদ মাধ্যম থেকে দূরে সরে থাকতে দেখা যায়। সংবাদ মাধ্যমের সামনে যে নেতার মুখ খোলা মানেই তৈরি হয় বিতর্ক, সেই নেতার এমন মৌনব্রত সবাইকে চমকে দিয়েছে। তবে তিনি যখন এসব শেষে ফের সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে মুখ খুললেন তখন আরও চমক।

মঙ্গলবার অনুব্রত মণ্ডল সাংবাদিকদের মুখোমুখি হলে তাকে প্রশ্ন করা হয়, এই ‘যে এজেন্সির চাপ কিভাবে কাটিয়ে উঠছেন?’ এই প্রশ্ন শুনে অনুব্রত মণ্ডলের সোজাসাপ্টা উত্তর, ‘দেখুন আমি তো চুরিও করি নাই, ডাকাতিও করি নাই। আমি মহাদেবের ভক্ত। ওরা যেটা বলে ডাকছে সেটা ফলস ডাকছে।’

এর পাশাপাশি তিনি এদিন জানান, পুজোর পর থেকেই শুরু হয়ে যাবে পঞ্চায়েত ভোটের প্রস্তুতি। তবে এবার পঞ্চায়েত ভোটে কোন দাওয়াই থাকবে না। তিনি জানান, ‘সবাই ফাইল করবে দল বিশেষে ফাইল করবে।’ অন্যদিকে এদিন তাকে ফের একবার বিজেপিকে একহাত নিতে দেখা যায়। তিনি বলেন, ‘এরা তো লুকিয়ে করছে সবকিছু। সোশ্যাল মিডিয়া নাকি বলে না! সেখানেই তো রাজনীতি করছে তারা। এদের তো লোকজন নাই।’

অন্যদিকে একুশে জুলাই তৃণমূলের শহীদ দিবসে ধর্মতলায় যাবেন অনুব্রত মণ্ডল বলে জানিয়েছেন। এই বিষয়ে তিনি জানান, ‘আমি আগে থেকেই বলে রেখেছি যাব। শরীর খারাপ। হাঁটতে একটু কষ্ট হবে, শ্বাসকষ্ট আছে।’

আরো পড়ুন