ইউক্রেনের বাঙ্কারে একরত্তি মেয়ের গান, ধৈর্যের বার্তা, মুগ্ধ বিশ্ব

ইউক্রেনের বাঙ্কারে একরত্তি মেয়ের গান, ধৈর্যের বার্তা, মুগ্ধ বিশ্ব

নিজস্ব প্রতিবেদন : গত ২৪ ফেব্রুয়ারি থেকে ইউক্রেনের উপর হামলা শুরু করেছে রাশিয়া। রাজায় রাজায় এই যুদ্ধ দেখতে দেখতে ১৫ দিনে পা দিলো। তবে এই যুদ্ধ রাজায় রাজায় হলেও তার ভোগান্তি, যন্ত্রণা সহ্য করতে হয় সাধারণ মানুষকে। ইতিহাসের এই পুনরাবৃত্তি রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধেও।

রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধে ইতিমধ্যেই ইউক্রেনের অধিকাংশ গুরুত্বপূর্ণ জায়গা ধ্বংসস্তূপে পরিণত হয়েছে। এই সকল গুরুত্বপূর্ণ জায়গা ধ্বংসস্তূপে পরিণত হওয়ার পাশাপাশি ১৫ লাখের বেশি মানুষ দেশ ছেড়েছেন। কিন্তু এখনো পর্যন্ত যারা দেশের মাটি আঁকড়ে রয়েছেন তাদের আশ্রয় বাঙ্কার। বদ্ধ জীবন ঘিরে ধরেছে তাদের।

আট থেকে আশি এখন প্রত্যেকেই বোমা বারুদ থেকে বাঁচার জন্য ইউক্রেনের বাঙ্কারে আশ্রয় নিয়েছেন। এক একটি জায়গায় গিজগিজ করছে মানুষ। বাঙ্কারের এই চেনা-পরিচিত চেহারা একই রকম হলেও এবার দেখা গিয়েছে এক অন্য দৃশ্য। আলো-আধাঁরির মধ্যে বাঙ্কারে থাকা মানুষগুলি জীবন খুঁজে পেয়ে হাসিমুখে দিন গুজরাচ্ছেন। প্রত্যেকের হাতেই মোবাইল। তবে তারই মাঝে প্রতিনিয়ত তাড়া করছে মৃত্যুভয়। তবে এই মৃত্যুভয়ের মাঝেই একরত্তি মেয়ে গান গেয়ে দিয়েছে ধৈর্যের বার্তা।

ওই মেয়ের গান করার ভিডিওটি সোশ্যাল মিডিয়ায় আপলোড হলে ভাইরাল হয়। যেখানে দেখা যায় ওই বাঙ্কারে থাকা প্রত্যেকেই তার দিকে মোবাইল ঘুরিয়ে রয়েছেন। সবাই তাকে ক্যামেরাবন্দি করছেন। আসলে ওই একরত্তি মেয়েটি এই মৃত্যুভয়ের মাঝেও আপন-মনে সুরেলা গলায় গেয়ে চলেছেন গান। তার গানে ফুটে উঠেছে ‘লেট ইট গো’।

জানা গিয়েছে ওই মেয়েটির নাম অ্যামেলিয়া। তার সুরের জাদুতে মুগ্ধ হয়েছেন ওই বাঙ্কারে উপস্থিত প্রতিটি মানুষ। শুধু বাঙ্কারে উপস্থিত মানুষেরা নন, এর পাশাপাশি তাঁর এই গানে মুগ্ধ যারাই এই গান শুনেছেন। তার এই গান প্রত্যেককে প্রশান্তি দিয়েছে। গত ৩ মার্চ এই ভিডিওটি ফেসবুকে আপলোড হয় এবং পরে অন্যান্য সোশ্যাল মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে।

আরো পড়ুন