এই সকল ট্রাম ডিপোতে হতে চলেছে শিল্প হাব, থাকবে রসগোল্লা থেকে সোনা

এই সকল ট্রাম ডিপোতে হতে চলেছে শিল্প হাব, থাকবে রসগোল্লা থেকে সোনা

নিজস্ব প্রতিবেদন : রাজ্যের বিরোধী দলের নেতারা বারংবার অভিযোগ করে আসছেন, ‘শিল্প নেই রাজ্যে’। এই অভিযোগের অবসান ঘটাতে তৃণমূল সরকার তৃতীয়বার সরকারে আসার পর থেকেই একের পর এক উদ্যোগ নিচ্ছেন শিল্পের উন্নয়নের জন্য। সেই সকল উদ্যোগের পরিপ্রেক্ষিতে বাংলার কুটির শিল্পকে নতুন পথ দেখাতে নতুন উদ্যোগ নিল রাজ্য সরকার।

কুটির শিল্পের উন্নয়নের জন্য কলকাতাতেই শিল্প হাব তৈরি করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে রাজ্য। এই শিল্প হাব তৈরি করার জন্য ট্রাম ডিপোগুলিকে কাজে লাগানোর চিন্তাভাবনা করছে তারা। এই পরিকল্পনার পরিপ্রেক্ষিতে আপাতত কালীঘাট, রাজাবাজার এবং বেলগাছিয়ায় যে সকল ট্রাম ডিপো রয়েছে সেগুলিতে শিল্প হাব গড়ে তোলা হবে।

এই তিনটি ট্রাম ডিপোতে যথাক্রমে গড়ে তোলা হবে রসগোল্লা, বস্ত্র ও সোনার হাব। এমনই পরিকল্পনা গ্রহণ করেছে রাজ্য বলে জানা যাচ্ছে। এই প্রসঙ্গে বলে রাখা ভালো, ইতিমধ্যেই পশ্চিমবঙ্গ রসগোল্লার জন্য জিআই তকমা পেয়েছে। এর পরিপ্রেক্ষিতে এই মিষ্টান্ন শিল্পকে আরও এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার জন্য উঠে-পড়ে লেগেছে রাজ্য সরকার।

জানা যাচ্ছে, এর পাশাপাশি তাঁত শিল্পকে উন্নয়নের পথ দেখানোর জন্য রাজ্য সরকারের তরফ থেকে রাজাবাজারে বস্ত্র হাব তৈরি করার পরিকল্পনা গ্রহণ করেছে। এমনিতেই রাজ্য সরকারের তরফ থেকে এই তাঁত শিল্পকে বাঁচিয়ে রাখার জন্য রাজ্যের বিভিন্ন জায়গায় তাঁতের হাটের আয়োজন করা হয়ে থাকে। এর বাইরেও যাতে সারা বছর ক্রেতা-বিক্রেতা পাওয়া যায় তার জন্য এই হাব তৈরি করার পরিকল্পনা গ্রহণ করা হয়েছে।

বেলগাছিয়ায় যে স্বর্ণ হাব তৈরি করার পরিকল্পনা গ্রহণ করা হয়েছে, সেই হাবের মাধ্যমে খুচরা বিক্রির পাশাপাশি জোর দেওয়া হবে রপ্তানির ক্ষেত্রে। কারণ পশ্চিমবঙ্গের সিঁথিতে বাংলার স্বর্ণ শিল্পীদের একটি বড় অংশ কাজ করেন। এই নতুন হাবের লক্ষ্য থাকবে যাতে সেই সকল শিল্পীরা সারা বছর কাজ পান সেই দিকে।

আরো পড়ুন