একধাক্কায় অনেকটা বাড়তে চলেছে পাঁউরুটির দাম, এই দিন থেকে হবে কার্যকর

একধাক্কায় অনেকটা বাড়তে চলেছে পাঁউরুটির দাম, এই দিন থেকে হবে কার্যকর

নিজস্ব প্রতিবেদন : বর্তমান দুর্মূল্যের বাজারে কোন জিনিসের দাম আর থেমে নেই। প্রতিদিনই কোন না কোন জিনিসের দাম বৃদ্ধি পাচ্ছে, এমনই খবর আসছে। এখন যারা সকালে বিকালে টিফিন মানেই পাঁউরুটি খেয়ে থাকেন তাদের জন্য এবার এল দুঃসংবাদ। কারণ এবার এক ধাক্কায় অনেকটাই বাড়তে চলেছে পাঁউরুটির দাম।

পাঁউরুটির দাম বৃদ্ধির পর নতুন দাম কার্যকর হবে আগামী রবিবার অর্থাৎ ৩০ জানুয়ারি। ইতিমধ্যেই মূল্যবৃদ্ধির পরিপ্রেক্ষিতে পশ্চিমবঙ্গ বেকারস অ্যাসোসিয়েশন বিবৃতি জারি করেছে। যেখানেই তাদের তরফ থেকে জানানো হয়েছে, প্রতি ৪০০ গ্রাম পাঁউরুটিতে ৪ টাকা দাম বাড়ানো হচ্ছে। এই সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়েছে বেকারস অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি তথা তৃণমূল বিধায়ক ইদ্রিস আলীর সভাপতিত্বে।

মূল্য বৃদ্ধির কারণ হিসাবে অ্যাসোসিয়েশনের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, কাঁচামালের দাম মাত্রাতিরিক্ত বেড়ে যাওয়ার কারণে তারা এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। ময়দা, চিনি, ভোজ্যতেল, ইস্ট, জ্বালানি প্রতিটি ক্ষেত্রেই মূল্যবৃদ্ধি পেয়েছে। এই সকল জিনিসপত্রের দাম বৃদ্ধি পাওয়ায় স্বাভাবিকভাবেই লাভ কমছে পাঁউরুটি ব্যবসায়ীদের। এর সঙ্গে আবার বৃদ্ধি পেয়েছে শ্রমিকদের খরচ।

দাম বৃদ্ধির পর পাঁউরুটির যে নতুন দাম হতে চলেছে তাতে বলা হয়েছে ৪০০ গ্রাম পাঁউরুটির রিটেল প্রাইস অর্থাৎ দোকানে কেনার ক্ষেত্রে দাম হবে ২৮ টাকা। ২০০ গ্রাম পাঁউরুটির রিটেল প্রাইস অর্থাৎ দোকানে কেনার ক্ষেত্রে দাম হবে ১৪ টাকা। অন্যদিকে স্লাইসড বাদ দিয়ে যে প্লেন পাঁউরুটি রয়েছে তার ১০০ গ্রামের (৪ পিস) দাম হতে চলেছে ৩০ টাকা।

পরিসংখ্যান অনুযায়ী পশ্চিমবঙ্গে প্রতিদিন প্রায় ১ কোটি মানুষ পাঁউরুটি খেয়ে থাকেন। অন্যদিকে চার হাজারের বেশি রয়েছে বেকারি। এমন পরিস্থিতিতে দাম বৃদ্ধির কারণেই স্বাভাবিকভাবেই এই এক কোটি মানুষের উপর প্রভাব পড়বে।

আরো পড়ুন