এক টিকিটেই কোটিপতি, লটারি ভাগ্য ফেরালো বীরভূমের ফেরিওয়ালার

এক টিকিটেই কোটিপতি, লটারি ভাগ্য ফেরালো বীরভূমের ফেরিওয়ালার

নিজস্ব প্রতিবেদন : রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্তে লটারির টিকিট কেটে কোটিপতি হওয়ার খবর একাধিকবার সংবাদের শিরোনামে উঠে এসেছে। আর এবার বীরভূমের এক ফেরিওয়ালার কপালে লটারির টিকিট কেটে কোটিপতি হওয়ার শিকে ছিঁড়লো।

লটারি টিকিট কেটে সম্প্রতি বীরভূমের যে ব্যক্তি কোটিপতি হয়েছেন তিনি হলেন খয়রাশোল ব্লকের লোকপুর থানার অন্তর্গত বুধপুর গ্রামের বাসিন্দা। ভাগ্যের চাকা ঘোরানো ওই যুবকের নাম শেখ জামিউল। বয়স পঁয়ত্রিশের ওই যুবকের পরিবারের রয়েছেন তার বাবা-মা, স্ত্রী এবং পুত্র ও কন্যা সন্তান।

শেখ জামিউল পেশায় একজন ফেরিওয়ালা। তিনি গ্রামগঞ্জে সাইকেল চালিয়ে ফেরি করে বাড়ি বাড়ি পুরাতন বই খাতা, প্লাস্টিক ইত্যাদি সংগ্রহ করেন। তারপর সেগুলিকে তিনি স্থানীয় আরতে বিক্রি করেন। এই ভাবেই কষ্ট করে তার সংসার চলে আসছে। তবে এর পাশাপাশি তার অভ্যাস রয়েছে প্রতিদিন লটারির টিকিট কাটার। আর সেই লটারি টিকিট এবার তার ভাগ্য বদলে দিলো।

শেখ জামিউল জানিয়েছেন, “ফেরি করে যে রোজগার হয় সেই রোজগার দিয়ে সংসার চালানোর পাশাপাশি মাঝে মাঝে টিকিট কাটি। সেইমতো মঙ্গলবার একটি টিকিট কেটেছিলাম। তারপর টিকিট বিক্রেতা আমাকে ফোন করে জানান আমার প্রথম পুরস্কার লেগেছে। ১ কোটি টাকা পুরস্কার হিসেবে পেয়েছি।”

টিকিট কেটে এই বিপুল পরিমাণ অঙ্কের টাকা জেতার পর শেখ জামিউল আনন্দে আত্মহারা হয়ে পড়েছেন। তিনি প্রথম দিকে বিষয়টি বিশ্বাস করতে পারেননি। তার কাছে এই বিষয়টি ছেঁড়া কাঁথায় লাখ টাকার স্বপ্ন দেখার মত মনে হয়েছিল। তবে সেটা স্বপ্ন নয়, বাস্তবই ছিল। অন্যদিকে এই বিপুল অঙ্কের টাকা জেতার পর তিনি সেই টাকা নিয়ে কী করবেন এখনই পরিকল্পনা করে উঠতে পারেননি। আপাতত সেই টাকা তিনি ব্যাঙ্কে সঞ্চয় করার জন্য জমা রেখেছেন বলে জানিয়েছেন।

আরো পড়ুন