এক ধাক্কায় পেট্রোলের দাম ২৫ টাকা কমানোর ঘোষণা এই রাজ্যের

এক ধাক্কায় পেট্রোলের দাম ২৫ টাকা কমানোর ঘোষণা এই রাজ্যের

নিজস্ব প্রতিবেদন : দিন দিন বেড়ে চলেছে ডিজেল ও পেট্রোলের দাম। জ্বালানির এই দাম বৃদ্ধিতে স্বাভাবিকভাবেই নাজেহাল অবস্থা হয়ে উঠেছে সাধারণ মানুষের। তবে এই পরিস্থিতি থেকে সুরাহা দিতে কেন্দ্র সরকার দিওয়ালির দিন থেকে পেট্রোলে লিটার প্রতি ৫ টাকা এবং ডিজেলে লিটার প্রতি ১০ টাকা ট্যাক্স কমানোর সিদ্ধান্ত নেয়।

তবে এই দাম কমানোর নিরিখে দেশ এবং প্রতিটি রাজ্যকে ধাক্কা দিলো ঝাড়খন্ড। ঝাড়খণ্ড সরকার লিটার প্রতি পেট্রোলে ২৫ টাকা দাম কমানোর ঘোষণা করল। এই ঘোষনা আপাতত ভারতবর্ষে নজিরবিহীন। কারণ একসঙ্গে এতটা দাম কমানোর ঘোষণা কোন সরকার করেনি। লিটার প্রতি ২৫ টাকা দাম কমানোর ঘোষণা অবিশ্বাস্য হলেও বুধবার এমনটাই জানিয়েছেন ঝাড়খন্ডের মুখ্যমন্ত্রী হেমন্ত সরেন।

২০১৯ সালের বিধানসভা নির্বাচনে এই ঝাড়খন্ডে বিজেপিকে হারিয়ে সরকার গঠন করে মহাজোট। যে মহাজোটে ঝাড়খণ্ড মুক্তি মোর্চা পায় ৩০টি আসন, কংগ্রেস ও আরজেডি পায় ১৬টি আসন। পরে আবার ঝারখণ্ড বিকাশ মোর্চার দুই বিধায়ক যোগদান কংগ্রেসে। সরকার গঠন করার পর মুখ্যমন্ত্রী হন হেমন্ত সরেন। এই হেমন্ত সরেনের সরকার গঠন আজ দু’বছর পূর্ণ হলো। সেই উপলক্ষেই পেট্রোলের দাম কমানোর সিদ্ধান্ত ঘোষণা করলেন মুখ্যমন্ত্রী হেমন্ত সরেন।

লিটার প্রতি পেট্রলে ২৫ টাকা দাম কম অবশ্য সব যানবাহনের জন্য নয় বলেই জানিয়েছেন হেমন্ত সরেন। তিনি জানিয়েছেন, “পেট্রোল-ডিজেলের দাম ক্রমাগত বেড়ে চলেছে। এর ফলে সবচেয়ে বেশি সমস্যায় পড়েছেন গরিব ও মধ্যবিত্তরা। সেই কারণেই রাজ্য সরকার দু’চাকার গাড়ির ক্ষেত্রে পেট্রোলের দাম লিটারপ্রতি ২৫ টাকা কমানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে।”

ঝাড়খন্ড রাজ্য সরকারের এই ঘোষণা অনুযায়ী, মোটরসাইকেল এবং স্কুটারের ক্ষেত্রে লিটার প্রতি পেট্রলে ২৫ টাকা কম পাওয়া যাবে। এই নিয়ম কার্যকর হবে আগামী বছর অর্থাৎ ২০২২ সালের ২৬ শে জানুয়ারি।

আরো পড়ুন