কনকনে ঠান্ডার মাঝেই ফের বৃষ্টির পূর্বাভাস দিল হাওয়া অফিস

কনকনে ঠান্ডার মাঝেই ফের বৃষ্টির পূর্বাভাস দিল হাওয়া অফিস

নিজস্ব প্রতিবেদন : দিন কয়েকের পশ্চিমী ঝঞ্ঝার পর গত বৃহস্পতিবার থেকে উত্তুরে হাওয়ার দাপট শুরু হয়েছে দক্ষিণবঙ্গে। উত্তুরে হাওয়ার এই দাপটে স্বাভাবিকভাবেই তাপমাত্রার পারদ অনেকটাই নেমে গিয়েছে। সবথেকে বেশি ঠান্ডা এখন দক্ষিণবঙ্গের পশ্চিমাঞ্চলের জেলাগুলিতে।

তবে এসবের মাঝেই ফের একবার বৃষ্টির পূর্বাভাস দিল হাওয়া অফিস। সপ্তাহ শেষে এই বৃষ্টির পূর্বাভাস রয়েছে। আর এই বৃষ্টির পূর্বাভাসে স্বাভাবিকভাবেই বাঙ্গালীদের ভ্যালেন্টাইন ডে অর্থাৎ সরস্বতী পুজো মাটি হওয়ার একটা সম্ভাবনা তৈরি হচ্ছে। শনিবার সরস্বতী পুজোর আগেই এই বৃষ্টির পূর্বাভাসে আশঙ্কায় দিন গুনছেন এই উৎসবে মেতে ওঠা পড়ুয়ারা।

রবিবার আলিপুর হওয়া অফিসের তরফ থেকে আবহাওয়া সংক্রান্ত যে রিপোর্ট পেশ করা হয়েছে তাতে লক্ষ্য করা যাচ্ছে, এদিন দিনের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ১১.৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা স্বাভাবিকের তুলনায় ৪° কম। গত ২৪ ঘন্টায় দিনের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ২২.২ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা স্বাভাবিকের তুলনায় ৫ ডিগ্রী কম। আগামী শনিবার কলকাতা এবং তার পার্শ্ববর্তী এলাকায় আকাশ মেঘলা থাকবে এবং বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে বলে জানানো হয়েছে।

রবিবার শ্রীনিকেতন হওয়া অফিসের তরফ থেকে আবহাওয়া সংক্রান্ত যে রিপোর্ট পেশ করা হয়েছে তাতে লক্ষ্য করা যাচ্ছে, এদিন দিনের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ৮.৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা স্বাভাবিকের তুলনায় ৪° কম। গত ২৪ ঘন্টায় দিনের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ২১.৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা স্বাভাবিকের তুলনায় ৪ ডিগ্রী কম। আগামী শনিবার বীরভূম এবং তার পার্শ্ববর্তী এলাকায় আকাশ মেঘলা থাকবে এবং বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে বলে জানানো হয়েছে।

উত্তর-পশ্চিম ভারতে নতুন করে একটি পশ্চিমী ঝঞ্ঝা প্রবেশ করেছে। এর পাশাপাশি ফেব্রুয়ারি মাসের শুরুতে আরও একটি পশ্চিমী ঝঞ্ঝা প্রবেশের সম্ভাবনা রয়েছে। এসবের কারণে নতুন করে এই বৃষ্টির সম্ভাবনা তৈরি হয়েছে দক্ষিণবঙ্গের অধিকাংশ জেলায়।

আরো পড়ুন