কমছে ট্রেনের ভাড়া, কিন্তু অগ্রিম কাটা টিকিটের টাকা কি ফেরত মিলবে

কমছে ট্রেনের ভাড়া, কিন্তু অগ্রিম কাটা টিকিটের টাকা কি ফেরত মিলবে

নিজস্ব প্রতিবেদন : করোনাকালে লকডাউন পরবর্তী সময়ে ভারতীয় রেলের (Indian Railway) তরফ থেকে যেসকল প্যাসেঞ্জার, মেল এবং এক্সপ্রেস ট্রেন (Special Train) চালানো শুরু করা হয় সেই সকল ট্রেনের নামের পরে স্পেশাল তকমা যুক্ত করা হয়। এই স্পেশাল তকমা যুক্ত করার সঙ্গে সঙ্গে বৃদ্ধি পায় টিকিটের মূল্য।

মূলত করোনাকালে যাতে ভিড় এড়ানো যায় সেই জন্য রেলের তরফ থেকে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বলে জানানো হয়। সিদ্ধান্ত অনুসারে লক্ষ্য করা গিয়েছে ট্রেনের টিকিটের দাম বেড়েছে অন্ততপক্ষে ৩০ শতাংশ। তবে এবার সেই স্পেশাল তকমা মুছে ফেলার দিকে উদ্যোগী হলো ভারতীয় রেল বোর্ড। এই তোকমা মুছে ফেলার কারণে ফের ট্রেনের ভাড়া আগের মতো হতে চলেছে। অর্থাৎ ভাড়া কমছে ৩০ শতাংশ।

রেলমন্ত্রী অশ্বিনী বৈষ্ণব জানিয়েছেন, ‘ইতিমধ্যেই ৭৫% এক্সপ্রেস ট্রেনের ক্ষেত্রে এই স্পেশাল তকমা মুছে ফেলা হয়েছে। বাকি যে ২৫% স্পেশাল ট্রেন রয়েছে সেগুলো আগামী কয়েক দিনের মধ্যে আগের মতই সাধারণ নামে চলবে।’ তবে এরপর এই প্রশ্ন উঠছে, যে সকল যাত্রীরা আগাম টিকিট বুক করে রেখেছেন তারা কি তাদের এই বাড়তি টাকা ফেরত পাবেন?

এর পরিপ্রেক্ষিতে রেলের তরফ থেকে স্পষ্ট করে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে, যে সকল যাত্রীরা ইতিমধ্যেই টিকিট কেটে নিয়েছেন অর্থাৎ অগ্রিম টিকিট বুক করেছেন তাদের টাকা ফেরত দেওয়ার কোন প্রশ্নই আসে না। এই প্রসঙ্গে রেলের তরফে আরও জানানো হয়েছে, অগ্রিম টিকিট বুক করার পর ভাড়া বৃদ্ধি পেলে যেমন বাড়তি টাকা নেওয়া হয় না, ঠিক তেমনি ভাড়া কমলেও বাড়তি টাকা ফেরত দেওয়া হবে না।

তবে এই প্রসঙ্গে বলে রাখা ভালো, যে সকল ট্রেনের স্পেশাল তকমা এখনো পর্যন্ত ওঠানো হয়নি সেই সকল ট্রেনের স্পেশাল তকমা কবে উঠবে তা সম্পর্কে এখনও পর্যন্ত রেলের তরফ থেকে নিশ্চিতভাবে কোনদিন ঘোষণা করা হয়নি। রেলের তরফ থেকে শুধু এটাই জানানো হয়েছে, খুব তাড়াতাড়ি এই স্পেশাল তকমা তুলে নেওয়া হবে।

আরো পড়ুন