করোনাকালে পুজোয় কি কি বিধিনিষেধ মানতে হবে স্পষ্ট করলো হাইকোর্ট

করোনাকালে পুজোয় কি কি বিধিনিষেধ মানতে হবে স্পষ্ট করলো হাইকোর্ট

নিজস্ব প্রতিবেদন : করোনাকালে এই বছর বাঙ্গালীদের সর্বশ্রেষ্ঠ উৎসব দুর্গোৎসবের দ্বিতীয় বছর। বরং গত বছরের তুলনায় এই বছর আক্রান্তের গ্রাফ এখনো বেশি। এমন পরিস্থিতিতে প্রত্যেকের মধ্যেই প্রশ্ন, পুজোর ক্ষেত্রে কি কি বিধি-নিষেধ জারি হবে তা নিয়েই।

পুজোর ক্ষেত্রে কি কি বিধি-নিষেধ পালন করতে হবে এই সংক্রান্ত একটি জনস্বার্থ মামলা হয় কলকাতা হাইকোর্টে। সেই জনস্বার্থ মামলার রায় ঘোষণা হল শুক্রবার। এদিন এই রায় ঘোষণা করেন কলকাতা হাইকোর্টের ভারপ্রাপ্ত প্রধান বিচারপতির বেঞ্চ। যে রায়ে তিনি গত বছর অর্থাৎ ২০২০ সালের বিধি নিষেধই বহাল রাখলেন।

আদালতের তরফে বলা হয়েছে, ছোট পুজো হোক অথবা বড় পুজো প্যান্ডেলে ঢোকার ক্ষেত্রে নির্দিষ্ট দূরত্ব বজায় রাখতে হবে। মন্ডপের ভিতরে প্রবেশ করা যাবে না। প্রতিমা দর্শনের ক্ষেত্রেও বজায় রাখতে হবে নির্দিষ্ট দূরত্ব। পাশাপাশি মন্ডপের ভিতরে যারা পূজোর কাজে নিযুক্ত থাকবেন তাদের সংখ্যা বেঁধে দিল আদালত।

এক্ষেত্রে আদালতের নির্দেশ অনুযায়ী, বড় পুজোর ক্ষেত্রে নিযুক্ত হতে পারবেন ২৫ জন এবং ছোট পুজোর ক্ষেত্রে নিযুক্ত হবেন সর্বোচ্চ ১২ জন। এই সকল যারা পূজোর কাজে নিযুক্ত হবেন বা থাকবেন তাদের নামের তালিকা আগেই প্রকাশ করতে হবে পুজো কমিটিগুলিকে। হাইকোর্টের এই নির্দেশ রাজ্য মেনে চলবে বলেই জানিয়েছেন হাইকোর্টের রাজ্যের অ্যাডভোকেট জেনারেল।

অন্যদিকে এদিন আদালতের বিচারপতি এটাও জানান, সবকিছু আদালত বলে দিতে পারে না। প্রশাসন যে সকল বিধিনিষেধ জারি করে সেই সকল বিধিনিষেধ বাস্তবায়িত করার জন্য জনগণের সচেতনতা প্রয়োজন। জনগণ সচেতন না হলে কোন কিছুই বাস্তবায়িত হবে না।

আরো পড়ুন