কলেজ পড়ুয়াকে মার সিভিক ভলেন্টিয়ারের, ঘটনায় চাঞ্চল্য বীরভূমে

কলেজ পড়ুয়াকে মার সিভিক ভলেন্টিয়ারের, ঘটনায় চাঞ্চল্য বীরভূমে

এক কলেজ পড়ুয়াকে বেধড়ক মারধরের অভিযোগ উঠল এক সিভিক ভলেন্টিয়ারের বিরুদ্ধে। ঘটনাটি ঘটেছে বীরভূমের মুরারই থানার অন্তর্গত নতুন বাজার মোড়ে। এই ঘটনায় আক্রান্ত হওয়া ওই কলেজ পড়ুয়ার কপাল ফেটে যায় এবং তিনি অভিযুক্ত সিভিক ভলেন্টিয়ার ও তার সঙ্গীদের উপযুক্ত শাস্তির দাবি করেছেন।

বীরভূমের মুরারই থানার অন্তর্গত মুরারই গ্রামের সাইফুল শেখ বৃহস্পতিবার রাতে তার বন্ধুদের সঙ্গে একটি জলসাতে যাচ্ছিলেন। সেই সময়ই মুরারই নতুন বাজার মোড়ে তাদের মধ্যে অবস্থায় গালাগালি করতে থাকেন সিভিক ভলেন্টিয়ার গুলজার এবং তার সঙ্গীরা। এই ঘটনায় দুই পক্ষের মধ্যে বাদানুবাদ শুরু হলে তা হাতাহাতিতে পৌঁছায়। সেই সময় ওই কলেজ পড়ুয়াদের মারধর করার অভিযোগ ওঠে ওই সিভিক ভলেন্টিয়ার এবং তার সঙ্গীদের বিরুদ্ধে।

এই ঘটনায় কলেজ পড়ুয়া সাইফুল শেখের কপাল ফেটে রক্তাক্ত হয়। তার অভিযোগ ওই সিভিক ভলেন্টিয়ার গুলজার এবং আরও কয়েকজন তাদের মারধর করেছেন। মারধর করার সময় সিভিক ভলেন্টিয়ার গুলজার বন্দুকের বাট দিয়ে তার কপালে চোখের ওপর আঘাত করেন। আর তাতেই তার চোখের উপর গুরুর কাছে কপালের অংশ ফেটে যায় এবং রক্তাক্ত হয়।

এই ঘটনার পর এলাকায় চাঞ্চল্য ছড়ায়। বেশ কিছুক্ষণের জন্য পথ অবরোধও করা হয়। আক্রান্ত কলেজ পড়ুয়া সাইফুল শেখ দাবি করেছেন, অবিলম্বে ওই সিভিক ভলেন্টিয়ারকে গ্রেফতার করতে হবে এবং সাসপেন্ড করতে হবে। তা না হলে তারা ফের অবরোধ শুরু করবেন। ঘটনাকে কেন্দ্র করে এলাকায় রয়েছে চাপা উত্তেজনা।

অন্যদিকে এই ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে মুরারই থানার পুলিশ শুরু থেকেই বিষয়টি খতিয়ে দেখার কাজ শুরু করে। যদিও শুক্রবার বিকাল পর্যন্ত কাউকে আটক করা হয়নি বলেই জানা গিয়েছে পুলিশ সূত্রে। তবে পুলিশের আশ্বাস, তাদের তরফ থেকে এই ঘটনায় দোষীদের বিরুদ্ধে পদক্ষেপ নেওয়ার পরিপ্রেক্ষিতে কোন খামতি রাখা হবে না।

আরো পড়ুন