খাবারের দোকানে ঢুকলো রড বোঝাই লরি, মৃত ১, আহত ৪

খাবারের দোকানে ঢুকলো রড বোঝাই লরি, মৃত ১, আহত ৪

নিজস্ব প্রতিবেদন : খাবারের দোকানে বসে কেউ টিফিন করছিলেন, কেউ চা খাচ্ছিলেন। সেই সময় কেউ কিছু টের পাওয়ার আগেই হুড়মুড়িয়ে ঢুকে পড়ল একটি রড বোঝাই লরি। নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে রড বোঝাই ওই লরি ঢুকে পড়ার ঘটনায় নিশ্চিহ্ন হয়ে গিয়েছে খাবারের দোকানটি। দুর্ঘটনায় (Road accident) একজনের প্রাণহানির খবর পাওয়ার পাশাপাশি আহত হয়েছেন চারজন। মর্মান্তিক এমন দুর্ঘটনাটি ঘটেছে রবিবার বীরভূমের (Birbhum Rampurhat) রামপুরহাট থানার ১৪ নম্বর জাতীয় সড়কের (National Highway) উপর অন্তর্গত মাঝখন্ড গ্রামের কাছে।

জানা গিয়েছে, এদিন একটি রড বোঝাই লরি রামপুরহাটের দিকে আসছিল। সেই সময় মাঝখন্ড গ্রামের কাছে হঠাৎ নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে একটি লরির সঙ্গে ধাক্কার পর প্রথমে ট্রাফিক পুলিশ চৌকিতে ধাক্কা মারে এবং পরে ঢুকে যায় স্থানীয় ওই খাবারের দোকানে। দুর্ঘটনার পর স্থানীয় বাসিন্দারা ওই দোকানে আটকে পড়া মানুষদের উদ্ধার করতে উদ্যত হয়। পাশাপাশি খবর পেয়ে উদ্ধারকার্যে নামে দমকল বাহিনীর কর্মীরা।

এই দুর্ঘটনায় স্থানীয় বাসিন্দা এবং দমকল বাহিনীর তৎপরতায় প্রথমে তিন জনকে উদ্ধার করে রামপুরহাট মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে পাঠানো হয়। সেখানে এক ব্যক্তিকে মৃত বলে ঘোষণা করা হয়। মৃত ব্যক্তি রেলকর্মী এবং তার বাড়ি নদীয়ায় বলে জানা গিয়েছে। অন্যদিকে পরে আরও দুজনকে আহত অবস্থায় উদ্ধার করে রামপুরহাট মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে পাঠানো হয়। পরিস্থিতি মোকাবেলায় ঘটনাস্থলে পৌঁছায় রামপুরহাট থানার পুলিশবাহিনী।

দোকানের মালিক উপশ্রী মন্ডল জানিয়েছেন, “কেউ কিছু বুঝে ওঠার আগেই একটি লরি অন্য একটি লরি ধাক্কা মরার পর পুলিশ চৌকিতে ধাক্কা মেরে হুড়মুড়িয়ে আমাদের এই দোকানে এসে ঢুকে পড়ে। আমি কোনোক্রমে পিছনের দরজা দিয়ে বেরিয়ে যাই। অন্যান্য যারা ছিল তারা কেউ কিছু বুঝতে পারেনি। একজন রেলকর্মী ঘটনাস্থলে চাপা পড়ে মারা যান। বাকিদের আহত অবস্থায় উদ্ধার করে স্থানীয় বাসিন্দারা এবং দমকল বাহিনীর কর্মীরা।”

ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে রবিবার বীরভূমের রামপুরহাটের মাঝখন্ড গ্রামে ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়ায়। স্থানীয় বাসিন্দারা এলাকায় ভিড় জমান। এর পাশাপাশি এই ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে এলাকার মানুষের মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়েছে।

আরো পড়ুন