গাড়ির কাগজপত্র সঙ্গে রাখার দরকার নেই, রাজ্যে চালু হলো এই পরিষেবা

গাড়ির কাগজপত্র সঙ্গে রাখার দরকার নেই, রাজ্যে চালু হলো এই পরিষেবা

নিজস্ব প্রতিবেদন : পথ দুর্ঘটনা থেকে শুরু করে নিয়ম না মেনে গাড়ি চালানোর জন্য সম্প্রতি পশ্চিমবঙ্গ সরকার জরিমানার পরিমাণ বৃদ্ধি করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। কেন্দ্রের দেখানো পথেই হাঁটতে দেখা গেল রাজ্য সরকারকে। রাজ্যে নতুন সংশোধনী মোটর ভেহিকেল অ্যাক্ট লাগু করার পরিপ্রেক্ষিতে নিয়ম লঙ্ঘন করার জন্য জরিমানার পরিমাণ এক ধাক্কায় বেড়েছে ১০ গুণ বা তার বেশি।

অন্যদিকে এই নিয়ম চালু করার পাশাপাশি পশ্চিমবঙ্গে আরও একটি নিয়ম লাগু হলো, যাতে গাড়ির মালিক এবং চালকরা অরিজিনাল কাগজপত্র বহন করার হাত থেকে রক্ষা পাবেন। ডিজি লকার নিজেদের নথিপত্র সংরক্ষণ করার যে পদ্ধতি রয়েছে সেই পদ্ধতি এই রাজ্যের চালক অথবা গাড়ির মালিকরাও অনুসরণ করতে পারবেন।

ডিজি লকার হলো একটি মোবাইল অ্যাপ, যেখানে আধার কার্ড, ড্রাইভিং লাইসেন্স, পলিউশন সার্টিফিকেট থেকে শুরু করে যাবতীয় তথ্য সংরক্ষণ করে রাখা যায়। রাস্তায় কোন জায়গায় ট্রাফিক পুলিশ চেকিং করলে এই অ্যাপের মধ্যে সংরক্ষণ করে রাখা নথিপত্র দেখালে আর অরিজিনাল কাগজপত্র দেখাতে হয় না। বৃহস্পতিবার কলকাতা পুলিশের তরফ থেকে এই পদ্ধতি রাজ্যে চালু হলো এমনটাই ঘোষণা করা হয়েছে।

নিয়ম লঙ্ঘন করে গাড়ি চালানোর ক্ষেত্রে জরিমানার পরিমাণ বৃদ্ধি করার পরিপ্রেক্ষিতে সাধারণ মানুষের মধ্যে যে অসন্তোষ তৈরি হয়েছিল, সেই অসন্তোষের মুহূর্তেই কলকাতা পুলিশের তরফ থেকে ডিজি লকার অ্যাপের বিষয়টি নিজেদের সোশ্যাল মাধ্যমে পোস্ট করে স্মরণ করিয়ে দেওয়া হয়। এমনকি জানানো হয় কোন ক্ষেত্রে নিয়ম লঙ্ঘন হলে যদি কেস দেওয়া হয় সে ক্ষেত্রে ই-চালানের মাধ্যমে ডিজি লকারে তথ্য চলে আসবে। যেকোনো সময় যেকোনো জায়গায় এই ডিজি লকার ব্যবহার করতে পারবেন চালক অথবা গাড়ির মালিকরা। তবে এই ডিজি লকার ব্যবহার করার ক্ষেত্রে আধার নম্বর বাধ্যতামূলক।

সম্প্রতি রাজ্যের বিভিন্ন জেলায় দুর্ঘটনার পরিমাণ বৃদ্ধি পাওয়ার বিষয়টিকে মাথায় রেখে রাজ্য সরকার নিয়ম লঙ্ঘনকারীদের জন্য জরিমানার পরিমাণ কয়েকগুণ বৃদ্ধি করেছে। এক্ষেত্রে পলিউশন সার্টিফিকেট না থাকলে ১০,০০০ টাকা, ড্রাইভিং লাইসেন্স না থাকলে ৫,০০০ টাকা, হেলমেট না পড়ে বাইক চালালে ১০০০ টাকা জরিমানা দিতে হবে। এছাড়াও অন্যান্য আরও বেশ কিছু ক্ষেত্রে জরিমানার পরিমাণ ১০ গুণের কাছাকাছি বৃদ্ধি করা হয়েছে।

আরো পড়ুন