ঘূর্ণিঝড়ের আবহেই মোবাইল টাওয়ারে উঠলো যুবক, চললো কেরামতি

ঘূর্ণিঝড়ের আবহেই মোবাইল টাওয়ারে উঠলো যুবক, চললো কেরামতি

একদিকে করোনা অন্যদিকে ঘূর্ণিঝড় যশ বা ইয়াস। আর এই দুইয়ের সাঁড়াশি চাপে পড়ে নাজেহাল অবস্থা রাজ্যের বাসিন্দাদের। রীতিমতো তারা আতঙ্কিত হয়ে পড়ছেন। তবে এই আতঙ্কের মাঝেও আতঙ্কহীন এক যুবকের খোঁজ মিললো বীরভূমে। যিনি কিনা এই ঘূর্ণিঝড়ের আবহেই একটি মোবাইল টাওয়ারের উপর উঠে বসলেন এবং নিজের কেরামতি দেখালেন।

ঘটনাটি ঘটেছে বীরভূমের দুবরাজপুর ব্লকের লোবা গ্রাম পঞ্চায়েতের ঝিরুল গ্রামে। ওই গ্রামের বাইরে রয়েছে একটি বেসরকারি টেলিকম সংস্থার সুউচ্চ মোবাইল টাওয়ার। সেই মোবাইল টাওয়ারে বুধবার হঠাৎ দয়াল বাউড়ি নামের বছর পঁয়ত্রিশের এক যুবক চড়ে বসলেন। সকলের নজর এড়িয়ে সোজা ওই মোবাইল টাওয়ারের ডগায় উঠতেই গ্রামের লোকেদের মধ্যে আতঙ্ক শুরু হয়। কিন্তু প্রশ্ন হল কেন ওই যুবক হঠাৎ ওই মোবাইল টাওয়ারের ডগায় চড়ে বসলেন?

জানা গিয়েছে, দিন কয়েক ধরেই ওই যুবককে এলাকায় অ’সংলগ্ন অবস্থায় ঘুরতে দেখা যাচ্ছিল। যদিও তার আগে পর্যন্ত সুস্থ ছিলেন বলে জানা যাচ্ছে। আর দিন কয়েক ধরে এমন অবস্থায় ঘুরে বেড়ানোর পরেই বুধবার ওই যুবক এমন কাণ্ড ঘটান। ঘটনার পর টাওয়ারের ডগায় বসে প্রায় ঘণ্টা দেড়েক ওই যুবককে নিজের কেরামতি দেখাতে লক্ষ্য করা যায়।


তবে এই অবস্থায় ওই যুবককে দেখে এলাকার বাসিন্দারা আতঙ্কিত হয়ে দুবরাজপুর থানা এবং দমকল বাহিনীকে খবর দেন। কিছুক্ষণের মধ্যেই ঘটনাস্থলে পৌঁছায় পুলিশ এবং দমকল বাহিনী। আর ঘটনাস্থলে পুলিশ এবং দমকল বাহিনী পৌঁছানোর পরেই ওই যুবক নিজে থেকেই টাওয়ার থেকে নিচে নেমে আসেন। যুবক নেমে আসায় স্বস্তি ফিরে গ্রামের বাসিন্দাদের মধ্যে।

আরো পড়ুন