জরিমানাতেই ছাড় নয়, হতে পারে আটক, বাজেয়াপ্ত হতে পারে ড্রাইভিং লাইসেন্স

জরিমানাতেই ছাড় নয়, হতে পারে আটক, বাজেয়াপ্ত হতে পারে ড্রাইভিং লাইসেন্স

নিজস্ব প্রতিবেদন : পশ্চিমবঙ্গের মতো রাজ্যে হামেশাই পথ দুর্ঘটনার ঘটনা ঘটে থাকে। শহর ও শহরতলিতে এই সকল দুর্ঘটনার সংখ্যা কম হলেও সংখ্যাটা অনেক বেশি জেলাগুলিতে। অন্যদিকে এই পথ দুর্ঘটনা ঠেকাতে রাজ্য সরকারের তরফ থেকে বারংবার প্রচার চালানো হচ্ছে ‘সেফ ড্রাইভ সেভ লাইফ’-এর। তবে তা সত্ত্বেও সচেতনতা না ফেরায় এবার কড়া পদক্ষেপ।

এমন কড়া পদক্ষেপের নির্দেশ দিতে দেখা গেল পূর্ব মেদিনীপুরের জেলাশাসককে। জেলায় একের পর এক দুর্ঘটনা এবং সেই সকল দুর্ঘটনায় একাধিক ব্যক্তির প্রাণহানির ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে পূর্ব মেদিনীপুরের জেলাশাসক নির্দেশ দেন, “৫০০, ১০০০ টাকা দিয়ে প্রসিকিউশন করে কোনও লাভ নেই, ডিটেইন করুন।”

এই নির্দেশের পরেই জেলা প্রশাসনের তরফ থেকে শুরু হয়েছে কড়া নজরদারি। অভিযান শুরু করেছেন পুলিশ এবং আরটিও অফিসাররা। হেলমেট ছাড়া বাইক চালানো, তিনজন বাইক আরোহী, অতিরিক্ত গতি। ছোট গাড়ির ক্ষেত্রে সিটবেল্ট না পরে দ্রুত গতিতে গাড়ি চালানো, নিয়ম ভঙ্গকারীদের বিরুদ্ধে শুরু হচ্ছে কড়া নজরদারি।

পাশাপাশি এই নির্দেশের পরে যদি কোনো চালক বেপরোয়া অথবা নিয়ম না মেনে গাড়ি ড্রাইভিং করে থাকেন, সেক্ষেত্রে জরিমানা ছাড়াও আটক, ড্রাইভিং লাইসেন্স বাতিল এবং ড্রাইভিং লাইসেন্স পাওয়ার যোগ্যতা হারাতে পারেন।

প্রসঙ্গত, পূর্ব মেদিনীপুর জেলা প্রশাসনের তরফ থেকে এমন কড়া পদক্ষেপ নেওয়ার নির্দেশ দেওয়ার পাশাপাশি বীরভূমে বৃহস্পতিবার থেকে শুরু হয়েছে পথচলতি মানুষদের সচেতন করার জন্য প্রচার। বীরভূমের বিভিন্ন থানার উদ্যোগে এই প্রচার কর্মসূচী গ্রহণ করা হচ্ছে। পরিসংখ্যান অনুযায়ী বীরভূমে দুর্ঘটনার সংখ্যা বেশ উল্লেখযোগ্য। বিশেষ করে বীরভূমের উপর দিয়ে যাওয়া ১৪ নং জাতীয় সড়কে নিত্যদিনই ঘটে থাকে কোন না কোন দুর্ঘটনা।

আরো পড়ুন