ঝাঁ-চকচকে বিশ্বমানের প্রথম রেল স্টেশন ভারতে, কি কি সুবিধা পাবেন যাত্রীরা

ঝাঁ-চকচকে বিশ্বমানের প্রথম রেল স্টেশন ভারতে, কি কি সুবিধা পাবেন যাত্রীরা

নিজস্ব প্রতিবেদন : ভারতে এই প্রথম তৈরি হল বিশ্বমানের একটি রেল স্টেশন। আগামীকাল অর্থাৎ ১৫ নভেম্বর এই রেলস্টেশনের উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। ভারতে প্রথম এই বিশ্বমানের রেল স্টেশনটি হলো মধ্যপ্রদেশের ভোপালের হাবিবগঞ্জ রেলস্টেশন।

প্রধানমন্ত্রীর নরেন্দ্র মোদির হাত ধরে এই রেল স্টেশনের উদ্বোধন ঘিরে ইতিমধ্যেই কড়া নিরাপত্তায় ঘিরে ফেলা হয়েছে স্টেশন চত্বরকে। পাশাপাশি যাত্রীদের প্রবেশ থেকে বাহির সব ক্ষেত্রেই কড়া তল্লাশি চালানো হচ্ছে। এই রেল স্টেশনটি তৈরি করা হয়েছে পিপিপি মডেলে। এর জন্য খরচ হয়েছে ৪৫০ কোটি টাকা। রেল স্টেশনটি তৈরি করা হয়েছে জার্মানির ইডেলবার্গ রেল স্টেশনের আদলে।

বিশ্বমানের এই রেল স্টেশনে যাত্রীদের বিনোদনের জন্য বসানো হয়েছে বিশাল জায়ান্ট স্ক্রিন। এখানে একসঙ্গে ৭০০ জন যাত্রী ট্রেনের জন্য অপেক্ষা করতে পারবেন। অপেক্ষারত প্রতিটি যাত্রীর সুবিধা এবং স্বাচ্ছন্দ্যের কথা মাথায় রেখে বিভিন্ন ধরনের অত্যাধুনিক এবং উন্নত সরঞ্জাম ব্যবহার করা হয়েছে।

এর পাশাপাশি এই রেলস্টেশনে রয়েছে আধুনিক টিকিট কাউন্টার, উন্নতমানের ফুড কোর্ট, এয়ার-কন্ডিশনড ওয়েটিং রুম, ডরমিটরি ও আধুনিক মানের ভিআইপি লাউঞ্জ। যাত্রীদের নিরাপত্তার কথা মাথায় রেখে পুরো রেলস্টেশন জুড়ে লাগানো হয়েছে ১৫৯টি সিসিটিভি ক্যামেরা।

সুরক্ষার দিক দিয়েও এই রেল স্টেশনের ক্ষেত্রে কোন রকম খামতি রাখা হয়নি। সুরক্ষাকে উন্নত করতে এই রেল স্টেশন তৈরি করার সময় ব্যবহার করা হয়েছে সমস্ত ধরনের উন্নতমানের সরঞ্জাম।

তবে এই রেল স্টেশন উদ্বোধন হওয়ার আগেই এর নাম পরিবর্তনের জন্য খোদ মধ্যপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী কেন্দ্রের কাছে চিঠি দিয়েছেন বলে জানা যাচ্ছে সূত্র মারফত। মধ্যপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী শিবরাজ সিং চৌহান কেন্দ্রের কাছে আরজি জানিয়েছেন, হাবিবগঞ্জের বদলে ভোপালের গোন্দ বংশের শেষ রানি কমলাপতির নামে স্টেশনের নাম হোক।

আরো পড়ুন