ঝোঁপঝাড়, খালাখন্দ থেকে আরও ২২টি চুরি যাওয়া মোটরবাইক উদ্ধার করলো বীরভূম পুলিশ

ঝোঁপঝাড়, খালাখন্দ থেকে আরও ২২টি চুরি যাওয়া মোটরবাইক উদ্ধার করলো বীরভূম পুলিশ

লাল্টু : চুরি যাওয়া মোটরবাইক উদ্ধারে তদন্তে নেমে বীরভূম জেলা পুলিশের তরফ থেকে ফের একবার বড়সড় সফলতা মিললো। গত ২৪ ঘন্টায় নতুন করে বীরভূম জেলা পুলিশের দুবরাজপুর থানার পুলিশ তল্লাশি চালিয়ে ঝোঁপঝাড়, খালাখন্দ থেকে আরও ২২টি চুরি যাওয়া মোটরবাইক উদ্ধার করতে সক্ষম হলো। বীরভূম জেলা পুলিশের তরফে ৭ দিনের মধ্যে উদ্ধার করা হলো ৩৬টি চুরি যাওয়া মোটরবাইক।

চলতি মাসের ৬ তারিখ দুবরাজপুর থানার পুলিশ পরপর দু’দিন অভিযান চালিয়ে ১৪টি চুরি যাওয়া মোটরবাইক উদ্ধার করেছিল। যে ঘটনায় জেলা পুলিশের তরফ থেকে মোট ৩ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়। ঘটনার পর ধৃতদের জিজ্ঞাসাবাদ করে এই মোটরবাইক চুরি কান্ডের সাথে কোন চক্র কাজ করছে তার অনুসন্ধান করতে শুরু করে পুলিশ। আর এরপর এই আরও বড় সফলতা পেল পুলিশ।

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, বৃহস্পতিবার রাতে চুরি যাওয়া মোটরবাইক উদ্ধারের জন্য পুনরায় অভিযান চালায় দুবরাজপুর থানার পুলিশ। সেই অভিযান চালকালীন দুবরাজপুর থানার অন্তর্গত দোবাধা গ্রামের লাল্টু সেখের বাড়ি থেকে উদ্ধার করা হয় ১৬টি চুরি যাওয়া মোটরবাইক। এর পাশাপাশি পুকুর, ডোবা এবং ঝোঁপঝাড় থেকে আরও ৬টি চুরি যাওয়া মোটরবাইক উদ্ধার করতে সক্ষম হয় পুলিশ।

প্রসঙ্গত, এই বিপুল সংখ্যক চুরি যাওয়া মোটরবাইক উদ্ধারের ঘটনায় আগেই বীরভূম জেলা পুলিশ সুপার নগেন্দ্র নাথ ত্রিপাঠী জানিয়েছিলেন, এই ঘটনার সাথে কোন আন্তঃরাজ্য চোরাচালান অথবা অন্য কোনো যোগ রয়েছে কিনা তা খতিয়ে দেখা হবে। পাশাপাশি যে সকল মোটরবাইক উদ্ধার করা হচ্ছে সেগুলির কাগজপত্র খতিয়ে দেখে খুব দ্রুত আসল মালিকদের হাতে তুলে দেওয়া হবে।

আরো পড়ুন