ট্রেন ছাড়াও বাস, বিমানের টিকিট কাটা যাবে রেলস্টেশনে, আসছে নতুন ব্যবস্থা

ট্রেন ছাড়াও বাস, বিমানের টিকিট কাটা যাবে রেলস্টেশনে, আসছে নতুন ব্যবস্থা

নিজস্ব প্রতিবেদন : রেলস্টেশনের টিকিট কাউন্টারে কেবলমাত্র ট্রেনের টিকিট বুক করা যায়। এই ধারণায় স্বাভাবিক। তবে এবার এই সকল চিরাচরিত ধারণা বদলাতে চলেছে নতুন ব্যবস্থাপনায়। ভারতীয় রেল রেল স্টেশনে একাধিক পরিষেবা দেওয়ার ক্ষেত্রে এমন এক ব্যবস্থা আনছে, যা যাত্রীদের কাছে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ব্যবস্থাপনা হয়ে উঠবে বলেই মনে করা হচ্ছে।

রেলের এই নতুন ব্যবস্থাপনায় রেল স্টেশনে মোবাইল রিচার্জ থেকে শুরু করে ইলেকট্রিক বিল জমা দেওয়া, এমনকি আয়কর রিটার্ন জমা দেওয়ার মতো কাজও করা যাবে অনায়াসে। খুব তাড়াতাড়ি এমন পরিষেবা চালু হতে। এই পরিষেবা মিলবে কমন সার্ভিস সেন্টার ই-গভর্নেন্স সার্ভিসেস ইন্ডিয়া লিমিটেড এবং তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রকের সহযোগিতায়।

যাত্রীদের এমন পরিষেবা প্রদানের জন্য রেলস্টেশনে তৈরি করা হবে কমন সার্ভিস সেন্টারের কিয়স্ক। এই সকল কিয়স্ক তৈরি করবে রেলটেল। খুব তাড়াতাড়ি রেলস্টেশনে তৈরি হতে চলা এই সকল কিয়স্কের নাম দেওয়া হয়েছে ‘RailWire Saathi Kiosks’।

রেলটেলের তরফ থেকে জানানো হয়েছে, এমন কিয়স্ক থেকে একাধিক জরুরি কাজ করা যাবে। যেমন ট্রেন, বিমান, বাস-সহ অন্যান্য জরুরি পরিবহনের টিকিট বুক করা যাবে। এছাড়াও যাত্রীরা চাইলে ভোটার কার্ড, আধার কার্ড সংক্রান্ত জরুরী কাজ এই সকল কিয়স্ক থেকেই করতে পারবেন। এছাড়াও হবে মোবাইল রিচার্জ, ব্যাঙ্কিং, বিমা, আয়কর, প্যানকার্ড সংক্রান্ত কাজও।

পরীক্ষামূলক ভাবে ইতিমধ্যেই এই ধরনের কিয়স্ক চালু হয়ে গিয়েছে দেশে। ইতিমধ্যেই এমন কিয়স্ক চালু হয়েছে বারানসি এবং প্রয়াগরাজ রেলস্টেশনে। পরবর্তী পর্যায়ে আরও ২০০টি রেলস্টেশনে তৈরি হতে চলেছে এমন কিয়স্ক।

সূত্র মারফত জানা যাচ্ছে আগামী দিনে দেশের যে সকল রেলস্টেশনগুলিতে এই ধরনের কিয়স্ক তৈরি হতে চলেছে সেগুলির মধ্যে দক্ষিণ-মধ্য রেলের ৪৪টি স্টেশন, উত্তর সীমান্ত রেলের ২০টি স্টেশন, পূর্ব-মধ্য রেলের ১৩টি স্টেশন, পশ্চিম রেলের ১৫টি স্টেশন, উত্তর রেলের ২৫ টি স্টেশন, পশ্চিম-মধ্য রেলের ১২টি স্টেশন, পূর্ব উপকূলীয় রেলের ১৩টি স্টেশন এবং উত্তর-পূর্ব সীমান্ত রেলের ৫৬ টি স্টেশনের নাম রয়েছে।

আরো পড়ুন