তাপে পুড়ে আর কটা দিন, আশার আলো দেখালো হাওয়া অফিস

তাপে পুড়ে আর কটা দিন, আশার আলো দেখালো হাওয়া অফিস

নিজস্ব প্রতিবেদন : গত সপ্তাহের শুক্রবার থেকে দক্ষিণবঙ্গের অধিকাংশ জেলায় যে হারে তাপ বৃদ্ধি পেয়েছে তাতে পরিস্থিতি ভয়ঙ্কর হয়ে দাঁড়িয়েছে। দক্ষিণবঙ্গের বেশকিছু জেলার তাপমাত্রা ছাড়িয়ে গিয়েছে ৪০ ডিগ্রি। এমনকি কয়েকটি জেলায় তাপমাত্রার পারদ ৪৪ ডিগ্রি পর্যন্ত পৌঁছে গিয়েছে। এমন পরিস্থিতিতে তাপে পুড়ে আমজনতার জীবন ওষ্ঠাগত হয়ে দাঁড়িয়েছে।

বীরভূম, বাঁকুড়া, ঝাড়গ্রাম, পশ্চিম বর্ধমান, মালদহ, মুর্শিদাবাদ, উত্তর ২৪ পরগনা, পশ্চিম মেদিনীপুর সহ অধিকাংশ জেলাতেই চলছে তাপপ্রবাহ। তাপপ্রবাহের তালিকা থেকে বাদ রয়েছে কেবলমাত্র দক্ষিণ ২৪ পরগনা, পূর্ব মেদিনীপুর এবং কলকাতা। তবে এই তিন জেলাতেও তাপমাত্রার পারদ খুব একটা কম নেই। এমন পরিস্থিতি থেকে কবে নিস্তার মিলবে তা নিয়েই প্রশ্ন আমজনতার।

পরিস্থিতি নিয়ে আলিপুর হাওয়া অফিসের উপ অধিকর্তা সঞ্জীব বন্দ্যোপাধ্যায় জানিয়েছেন, “আগামী ২৮ তারিখ পর্যন্ত বৃষ্টির কোন সম্ভাবনা নেই। তবে ২৯ তারিখ থেকে ধীরে ধীরে আবহাওয়ার পরিবর্তন লক্ষ্য করা যাবে। তবে জোরালো বৃষ্টির জন্য অপেক্ষা করতে হবে ২ মে পর্যন্ত।”

এমন পরিস্থিতি তৈরি হওয়ার কারণ হিসাবে সঞ্জীব বন্দ্যোপাধ্যায় জানিয়েছেন, এবার বৃষ্টি বা কালবৈশাখী না হওয়ার কারণে রয়েছে বঙ্গোপসাগরের উপর থাকা একটি বিপরীত ঘূর্ণাবর্ত। এই মুহূর্তে বিপরীত ঘূর্ণাবর্ত অনেকটা দক্ষিণে রয়েছে, কিছুটা পশ্চিম ঘেঁষে। ফলে বায়ুপ্রবাহ উড়িষ্যা, ছত্রিশগড় হয়ে অনেকটা পথ পাড়ি দিয়ে পশ্চিমবঙ্গের ঢুকছে। এখানে আসার পর সেই বায়ুপ্রবাহ শুকিয়ে যাচ্ছে।

আলিপুর হাওয়া অফিসের তরফ থেকে বৃষ্টি সংক্রান্ত যে পূর্বাভাস দেওয়া হয়েছে তাতে বলা হয়েছে, শনিবার আংশিক মেঘলা আকাশ লক্ষ্য করা যাবে এবং রবিবার ও সোমবার বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। শ্রীনিকেতন হাওয়া অফিসের তরফ থেকে জানানো হয়েছে, শুক্রবার আংশিক মেঘলা আকাশ লক্ষ্য করা যেতে পারে এবং শনিবার বৃষ্টির দেখা মিলতে পারে। রবিবার এবং সোমবার ছুটি ফোঁটা বৃষ্টির দেখা মিলতে পারে বেশকিছু জায়গায়।

আরো পড়ুন