তারাপীঠে হোটেল মালিককে মারধর আটক দিল্লীর দুই যাত্রী

প্রীতম দাস তারাপীঠ, ১৯ মে : যাত্রীদের মারধরে জখম হলেন হোটেল মালিক। তাকে গুরুতর জখম অবস্থায় রামপুরহাট মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে তারাপীঠের রবীন্দ্র পল্লি এলাকায় একটি বেসরকারি লজে।
জানা গিয়েছে, শনিবার সকালে তারাপীঠের রবীন্দ্রপল্লি এলাকায় একটি হোটেলে ওঠে দিল্লির কয়েকটি পরিবার। বিকেলের দিকে হোটেল ছাড়ার সময় তাদের ঘরের দুটি এসির রিমোর্ট পাওয়া যাচ্ছিল না। এনিয়ে তাদের বলতে গেলে হোটেল মালিককে বেধড়ক মারধর করে যাত্রীরা। তার চিৎকারে আশেপাশের লোকজন ছুটে এসে উদ্ধার করে। গুরুতর জখম হোটেলের মালিক দীপক কুমার মণ্ডলকে রামপুরহাট মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তার কপালে বেশ কয়েকটি সেলাই লেগেছে। মারধরের ঘটনা সিসি টিভি ক্যামেরায় ধরা পড়েছে। ঘটনায় দুই যাত্রীকে আটক করেছে পুলিশ। তাদের বাড়ি পশ্চিম দিল্লি এলাকায়।
হোটেল কর্মী রাধা বল্লভ মণ্ডল বলেন, “ওই যাত্রীরা হোটেল ছাড়ার সময় আমি এসির রিমর্ট এবং ঘরের চাবি চাই। কিন্তু তারা না দিয়েই পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে। আমরা তাদের খোওয়া যাওয়া জিনিস চাইতে গেলে মালিক দীপক কুমার মণ্ডলকে মাটিতে ফেলে মারধর করে। তার কপাল ফেটে রক্তাক্ত হয়”।

আরো পড়ুন