‘ত্রিপুরা, গোয়া দুটোই জিতবে তৃণমূল’, কত আসনে জিতবে ভবিষ্যদ্বাণী অনুব্রত মণ্ডলের

‘ত্রিপুরা, গোয়া দুটোই জিতবে তৃণমূল’, কত আসনে জিতবে ভবিষ্যদ্বাণী অনুব্রত মণ্ডলের

নিজস্ব প্রতিবেদন : একুশের বিধানসভা নির্বাচনের আগে বীরভূম জেলা তৃণমূল সভাপতি অনুব্রত মণ্ডল (Anubrata Mondal) ভবিষ্যদ্বাণী করে বলেছিলেন, ‘২২০ থেকে ২৩০’। তার এই ভবিষ্যদ্বাণীকে একপ্রকার সঠিক করেই দুটি আসনে নির্বাচন না হয়েই তৃণমূল পায় ২১৩টি আসন।

আর এবার যখন পশ্চিমবঙ্গে (West Bengal) প্রত্যাবর্তন করার পর তৃণমূল ঝাঁপিয়ে পড়েছে ত্রিপুরা, (Tripura) গোয়া (Goa) ইত্যাদি রাজ্য দখলের লক্ষ্যে সেই সময়ে অনুব্রত মণ্ডল পুনরায় ভবিষ্যদ্বাণী করলেন, ‘ত্রিপুরা, গোয়া দুটোতেই জিতবে তৃণমূল।'( TMC) এমনকি এই দুটি রাজ্যে কত আসনে তৃণমূল জয়লাভ করবে তাও ভবিষ্যদ্বাণী করে জানিয়ে দিলেন তিনি।

বুধবার বোলপুরের তৃণমূল কার্যালয়ে ছিল একটি যোগদান কর্মসূচী। যেখানে বিজেপি ছাড়াও বিভিন্ন রাজনৈতিক দল থেকে কর্মী-সমর্থকরাও তৃণমূলে যোগ দেন। এই যোগদান কর্মসূচি শেষেই অনুব্রত মণ্ডল ত্রিপুরা ও গোয়ায় তৃণমূলের ভবিষ্যৎ জানিয়ে দিলেন।

সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে অনুব্রত মণ্ডল বলেন, “ত্রিপুরাও জিতবো, গোয়াও জিতবো। আমার কথা হচ্ছে ৫৯ টা সিট হচ্ছে ত্রিপুরায়। ৪০ থেকে ৪৫ টা পাবো। গোয়ায় ৩০-৪০ টা সিট আছে, ওখানে নাই নাই করে ৩০ টা পেয়ে যাবো। গোয়া তো কংগ্রেসের ফ্যাক্টর। ওখানে তো কংগ্রেসিরা আমাদের সঙ্গে হাত মিলিয়েছে। কংগ্রেসের টিমটা তো তৃণমূলে চলে এসেছে।”

এর পাশাপাশি তিনি বলেন, “বিজেপি ভয় পাচ্ছে বলেই ত্রিপুরায় বারবার তৃণমূল কংগ্রেস আক্রান্ত হচ্ছে। তৃণমূল এমন একটা দল যারা সাধারণ মানুষের সঙ্গে থাকে। খেটে খাওয়া মানুষের সঙ্গে থাকে, দিনমজুরের সঙ্গে থাকে। ভোটের আগে বলেছিল লক্ষ্মীর ভান্ডার দেব, সে কিন্তু দিয়ে দেখিয়ে দিল। বেইমানি জানে না, এর নাম মমতা ব্যানার্জি।”

অন্যদিকে আগামীকাল বীরভূমের কঙ্কালীতলা সতীপীঠে রয়েছে ১২ ঘণ্টাব্যাপী তৃণমূলের মহাযজ্ঞ। এই মহাযজ্ঞে সামিল হবেন বীরভূম জেলা তৃণমূল সভাপতি অনুব্রত মণ্ডল। যজ্ঞে ব্যবহার করা হবে ১ কুইন্টাল ৫ কেজি কাঠ, পাঁচ টিন ঘি। এই মহাযজ্ঞে হাজির থাকবেন ১১ জন পুরোহিত।

আরো পড়ুন