দুবরাজপুরের ঝিরুল গ্রামে তৃণমূল কর্মীকে মারধর

দুবরাজপুরের ঝিরুল গ্রামে তৃণমূল কর্মীকে মারধর

শেখ ওলি মহম্মদ :-

তৃণমূলের এক কর্মী সেখ ইউনুসকে মারধর করে মাথা ফাটানোর অভিযোগ উঠল তৃণমূলের এক গোষ্ঠীর লোকেদের বিরূদ্ধে। ঘটনাটি ঘটেছে বীরভূম জেলার দুবরাজপুর ব্লকের লোবা পঞ্চায়েতের ঝিরুল গ্রামে। উল্লেখ্য, ২০২১ সালে বিধানসভা নির্বাচনে ঝিরুল গ্রাম প্রায় ১০০ ভোটে পিছিয়ে ছিল। তাই তৃণমূলের জেলা সভাপতি অনুব্রত মণ্ডল লোবা অঞ্চল সভাপতিকে পরিবর্তন করে ফেলারাম মণ্ডলকে নতুন সভাপতি করেন। তারপর থেকে কিছু সংখ্যক তৃণমূলের কর্মী ফেলারাম মণ্ডলের দিকে হয়ে যায় এবং কিছু সংখ্যক কর্মী আরেক গোষ্ঠির দিকে হয়ে যায়। তাই আজ তৃণমূলের ওপর গোষ্ঠীর সালামত ও আজব একটি কমিউনিটি হলে নিয়ে গিয়ে মারধর করে বলে অভিযোগ করেন সেখ ইউনুস। তিনি আরও বলেন, গ্রামে একটা বিচার হয়েছিল একজন মহিলাকে নিয়ে। আর সেই বিচারে ৪৫ হাজার টাকা জরিমানা হয়েছিল। ঐ টাকা মেয়ে পক্ষ ও ছেলে পক্ষ কাউকেই দেওয়া হয়নি। কয়েকজনের দায়িত্বে রাখা হয়েছিল। তাই ছেলে পক্ষ ঐ টাকা নিতে চাইলে আমি বলি আমাদের গ্রামে একটা ঝামেলা চলছে ঐ ঝামেলা মিটে গেলে আমরা গ্রামের লোকেরা মিলে টাকা ফেরত দেব। সেই সময় ওপর গোষ্ঠীর সালামত ও আজব একটি কমিউনিটি হলে নিয়ে গিয়ে আমাকে মারধর করে। আমি তাঁদের বিরূদ্ধে দুবরাজপুর থানায় অভিযোগ করব তাঁরা যেন শাস্তি পায়।

আরো পড়ুন