নলহাটিতে লাইনচ্যুত মালবাহী ট্রেন, ব্যাহত রেল পরিষেবা

নলহাটিতে লাইনচ্যুত মালবাহী ট্রেন, ব্যাহত রেল পরিষেবা

 

ময়নাগুড়ির পর ফের একবার ঘটল রেল দুর্ঘটনা। তবে দুর্ঘটনা এবার মালবাহী ট্রেনে। চলন্ত অবস্থাতেই লাইনচ্যুত হয়ে লাইন থেকে উল্টে গেল মালগাড়ি ৩ টি বগি। তবে বড় কোনও দুর্ঘটনা ঘটেনি। যদিও মালগাড়ির এই বিপর্যয়ের জেরে ব্যাপক যানজট তৈরি হয় নলহাটি রেলগেটে। এই দুর্ঘটনা ঘটার সঙ্গে সঙ্গে ঘটনাস্থলে পৌঁছন রেলের আধিকারিকরা। লাইনচ্যুত বগিটিকে সরিয়ে নিয়ে যাওয়ার কাজ চলছে।

শুক্রবার রাত্রি নাগাদ বীরভূমের নলহাটি- রামপুরহাট রেল লাইনের ওপর একটি মালগাড়ি যাওয়ার সময় এই ঘটনা ঘটে। স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, আজিমগঞ্জ থেকে একটি মালগাড়ি রামপুরহাটের দিকে যাচ্ছিল। নলহাটি স্টেশন পেরিয়ে কিছু সামনে মালগাড়িটি এলে ঘটে বিপর্যয়। ট্রেনটির ৩ টি বগি হঠাৎ করেই লাইনচ্যুত হয়ে লাইনের পাশে উল্টে যায়। তবে প্রত্যক্ষদর্শীরা জানাচ্ছেন, ট্রেনটি বেশ ধীর গতিতেই পার হচ্ছিল, হঠাৎ করে বিকট শব্দ হয়। তারপর দেখা যায় ট্রেন কয়েকটি বগি লাইনচ্যুত হয়েছে।

ইত্যিমধ্যেই এই এই দুর্ঘটনার জের রেললাইনের ওপর যাতায়াত বন্ধ রাখা হয়েছে। ব্যহত হচ্ছে ট্রেন চলাচল। রেলের তরফে লাইনচ্যুত বগিটিকে সরিয়ে নিয়ে যাওয়ার কাজ চলছে দ্রুতগতিতে। দুর্ঘটনার সময় ট্রেনটি ফাঁকা থাকায় কোনও ক্ষয়ক্ষতি হয়নি। তবে যাত্রীরা থাকলে বড় বিপদ হতে পারত বলে মনে করছেন আধিকারিকরা। ইতিমধ্যেই এই ঘটনার তদন্তের নির্দেশ দিয়েছে ভারতীয় রেল।

এই ঘটনায় রেল কর্তৃপক্ষের উদাসীনতা নিয়ে প্রশ্ন তুলতে শুরু করেছেন স্থানীয় বাসিন্দারা। তাঁদের মতে, এই ঘটনাটি মালগাড়ির না হয়ে কোনও প্যাসেঞ্জার ট্রেন হলে বিশাল দুর্ঘটনা ঘটে যেতে পারত। এই দুর্ঘটনার পর ফের রেলের সুরক্ষা নিয়ে প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে। যদিও এই ঘটনায় কোনও বড়সড় দুর্ঘটনা ঘটেনি। কারওর কোনও ক্ষতি হয়নি বলে রেলের তরফে জানানো হয়েছে।আপাতত মালগাড়িটিকে সরিয়ে নিয়ে যাওয়া হয়েছে।ওই লাইনে ট্রেন চলাচল স্বাভাবিক হয়েছে বলে খবর।

এই প্রথম নয়, বেশ কিছুদিন আগে পাঁশকুড়ার কাছে লাইনচ্যুত হয়ে উল্টে পড়ে গিয়েছিল একটি মালগাড়ির কয়েকটি বগি। সেদিনও একই ঘটনার জেরে বাতিল হয়ে যায় বেশ কয়েকটি ট্রেন।

আরো পড়ুন