নাকা চেকিং করে আনুমানিক ৫ কেজি বারুদ মসলা উদ্ধার

প্রীতম দাস রামপুরহাট :-

নাকা চেকিং করার সময় আনুমানিক ৫ কেজি বোমা তৈরির বারুদ মসলা উদ্ধার করে রামপুরহাট থানার পুলিশ।। ধৃত দুই, জানা যায়, বীরভূম জেলা পুলিশ সুপার ভাস্কর মুখোপাধ্যায় এর নির্দেশ মত গতকাল সন্ধ্যাবেলায় ঝনঝনিয়া মোড় সংলগ্ন দুমকা মুনসুবা রোডে শুরু হয় নাকা চেকিং। রুটিন মাফিক সমস্ত গাড়ি ধাপে ধাপে চেক করা হচ্ছিলো। তারপরেই আনুমানিক সন্ধ্যা ০৯ টা নাগাদ একটি মোটর সাইকেল এ দুই জন আসছিল তবে চেকিং দেখে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে দুইজনই।পুলিশের তৎপরতায় তাদের কে আটক করা হয় এবং তাদের কে গাড়ির ডিকি খুলে দেখানোর জন্য বলা হলে তারা ডিকি খুলে। ডিক্কি খুলে দেখা যায় যে তিনটে প্যাকেট রয়েছে যার মধ্যে আলাদা আলাদা রঙের গুঁড়ো পদার্থ আছে । ওদের কে জিজ্ঞাসাবাদ করার পর জানা যায় প্যাকেট গুলিতে বারুদের গুঁড়ো ছিল । ধৃতদের বাড়ি মাড়গ্রামে এবং মুর্শিদাবাদে। ওই বোমের মশলা গুলি ঝাড়খণ্ড নিয়ে যাচ্ছিলো এবং যথারীতি ওই বোমের মশলা রাখার জন্য কোনো বৈধ কাগজ দেখাতে পারেনি তারা । এই ধরনের বেআইনি বিস্ফোরক রাখার অভিযোগে ওই দুই জন অভিযুক্ত কে গ্রেফতার করা হয় এবং ওই বিস্ফোরক ভর্তি প্যাকেট গুলো বাজেয়াপ্ত করা হয় যাহার আনুমানিক ওজন ৫ কিলো। অনুমান করা যায় যে ওই এই পাঁচ কিলো বিস্ফোরক থেকে অন্তত ৫০ থেকে ৬০ টি crude bomb তৈরী করা যেত। বীরভূম জেলার নতুন পুলিশ সুপার ভাস্কর মুখার্জির নৃতত্বে নিয়মিত নাকা চেকিং শুরু হয়েছে।আর তারই ফল স্বরূপ, এই ধরনের বিস্ফোরক উদ্ধার করা সম্ভব হচ্ছে বলে প্রশাসন সূত্রে খবর।

আরো পড়ুন