‘নিখিল নুসরতের বিয়ে হয় নি’, অবশেষে আদালতে হলো পর্দা ফাঁস

‘নিখিল নুসরতের বিয়ে হয় নি’, অবশেষে আদালতে হলো পর্দা ফাঁস

নিজস্ব প্রতিবেদন : ম্যারেজ অ্যানালমেন্টের উপর ভর করে ব্যবসায়ী নিখিল জৈন (Nikhil Jain) আদালতের দ্বারস্থ হয়েছিলেন অভিনেত্রী নুসরতের (Nusrat Jahan) সঙ্গে সম্পর্ক ছিন্ন করার জন্য। নিখিলের এই পদক্ষেপের পরিপ্রেক্ষিতে বুধবার তার বড় জয় এলো। আলিপুর সিভিল কোর্ট তাদের দুজনের এই বিয়েই বাতিল করে দিল।

নিখিল জৈনের সঙ্গে অভিনেত্রী নুসরতের ঘনিষ্ঠতা তৈরি হওয়ার পর ২০১৯ সালে তারা তুরস্কে গিয়ে ডেস্টিনেশন ওয়েডিং সারেন। তাদের সেই বিয়ের অনুষ্ঠান জাঁকজমক থেকে শুরু করে সব দিক দিয়ে ছিল নজরকাড়া। বিয়ের পর কখনও ভাবা যায়নি দুজনের মধ্যে সম্পর্কের তিক্ততা তৈরি হবে।

বিয়ের পর দুজনকে একসঙ্গে বিভিন্ন জায়গায় কাটাতে দেখা যায়। এমনকি নুসরত কোথাও কোনো অনুষ্ঠানের ফিতে কাটতে গেলেও সেখানেও নিখিলকে সঙ্গী হিসাবে যেতে দেখা গিয়েছে। দুর্গা পুজোর সিঁদুরখেলা থেকে শুরু করে তারাপীঠ মন্দিরে পুজো দেওয়া, একসঙ্গে রথের দড়ি টানার সাক্ষী থেকেছে এ বাংলা। তবে এসবের পরেও বিয়ের বছর ঘুরতে না ঘুরতেই শুরু হয় দুজনের মধ্যে তিক্ততা।

দুজনের মাঝে তৃতীয় জন হিসেবে অভিনেতা যশ দাশগুপ্তের আগমণে যখন একে অপরের থেকে তারা আলাদা হয়ে পড়েছেন সেই সময় নানান বিতর্ক তৈরি হলে একবার সেই সকল বিতর্ক নিয়ে মুখ খুলতে গিয়ে নুসরত জানিয়েছিলেন, নিখিলকে বিয়েই করেন নি। সহবাস করেছেন। আদালতে নিখিল যখন নুসরতের থেকে সবদিক দিয়ে আলাদা হতে চেয়েছিলেন সেই সময়ে বুধবার আদালত জানিয়ে দিল, হাই প্রোফাইল এই বিয়ে বৈধ নয়। কারণ তারা তুরস্কে বিয়ে করলেও এই দেশে ম্যারেজ রেজিস্ট্রি করেন নি। এক্ষেত্রে নিখিলের জয় হলো আদালতে।

কারণ নুসরত আদালতে এই পরিপ্রেক্ষিতে বিচ্ছেদ চাননি। কারণ যখন নিখিল বিচ্ছেদের কথা জানিয়েছিলেন সেইসময় অভিনেত্রী নুসরত বলেছিলেন, তারা কেবল লিভ ইন সম্পর্কে ছিলেন। সুতরাং বিচ্ছেদের কোন প্রশ্নই ওঠে না। অভিনেত্রীর এই মন্তব্য ঘিরে চরম বিতর্ক তৈরি হয়েছিল। যদিও বর্তমানে সে সব এখন অতীত।

আরো পড়ুন