পঞ্চম শ্রেণীর ছাত্রকে এলোপাতাড়ি মারধর করে রক্তাক্ত করার অভিযোগ উঠল প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে, আটক প্রধান শিক্ষক

পঞ্চম শ্রেণীর ছাত্রকে এলোপাতাড়ি মারধর করে রক্তাক্ত করার অভিযোগ উঠল প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে, আটক প্রধান শিক্ষক

সুদীপ্ত দাস :-

পঞ্চম শ্রেণীর এক ছাত্রকে এলোপাতাড়ি মারধর করে রক্তাক্ত করে দেওয়ার অভিযোগ উঠল প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে। আর এই ঘটনায় আজ সকালে তীব্র উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে দেগঙ্গার চাকলা গ্রাম পঞ্চায়েতের সুবর্ণপুর এফ পি স্কুল চত্বরে। আক্রান্ত পঞ্চম শ্রেণির ছাত্রের নাম হাসিন আরমান মন্ডল তাকে বাঁশের কঞ্চি দিয়ে পিঠে মুখে এবং নিতম্বের ওপরে নির্মমভাবে প্রহার করেছে শিক্ষক। গাল ফেটে রক্ত বেরোচ্ছে ঘটনায় তীব্র উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে স্কুল চত্বরে। খবর পেয়ে আক্রান্ত ছাত্রের পরিবারের লোকজন এবং স্থানীয় অভিভাবকরা এসে শিক্ষককে আটকে রাখে। এই ঘটনার পরে অভিযুক্ত শিক্ষক উত্তম কুমার দাস তিনি ভুল স্বীকার করেছেন। কিন্তু এতে ক্ষান্ত হননি আক্রান্ত ছাত্রের পরিবারের পক্ষ থেকে দেগঙ্গা থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে অভিযোগ অভিযোগের ভিত্তিতে শিক্ষককে আটক করেছে পুলিশ। তবে শিক্ষাঙ্গনে এভাবে এক ছাত্রকে যেভাবে প্রধান শিক্ষক মেরেছে অমানবিকতার দৃষ্টান্ত ফুটৈ উঠেছে এলাকায়। অভিভাবক থেকে শুরু করে প্রতিবেশীরা ওই শিক্ষকের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি করেছেন। প্রধান শিক্ষক উত্তম কুমার দাসের সাফাই তিনি বসে ছিলেন আক্রান্ত শিক্ষক হাসিন আরমান মন্ডল ওই ছাত্র তাকে আম ছুঁড়ে মারে তিনি বারবার নিষেধ করেন না শুনলে তিনি এরপর তাকে নির্মমভাবে প্রহার করেছেন তবে এভাবে প্রহার করা ঠিক হয়নি তিনি ভুল স্বীকার করে নিয়েছেন। এই ঘটনায় শিক্ষককে পুলিশ আটক করেছে ।

আরো পড়ুন