পুলিশের গাড়ি এলেই ছুটে আসছে কুকুরের দল

পুলিশের গাড়ি এলেই ছুটে আসছে কুকুরের দল

প্রীতম দাস বীরভূম:-

পুলিশের গাড়ি থামলেই ছুটছে কুকুর।তাড়া করে নয়, আনন্দে লেজ নাড়তে নাড়তে পুলিশের গাড়ির পিছনে সামনে পাশে গিয়ে জড়ো হচ্ছে পথ কুকুরের দল ।খাবারের গন্ধ পেয়েছে তারা ।পুলিশকর্মীরা গাড়ি থেকে রান্না করা খাবার নিয়ে পথে নামিয়ে দিচ্ছেন।নিমেষে সাবাড় করে দিচ্ছে কুকুরের দল, গত পাঁচ দিন থেকে রামপুরহাট শহরে প্রধান রাস্তা ও মোড়ে মোড়ে দেখতে পাচ্ছেন শহরবাসী। পুলিশের এই উদ্যোগকে প্রশংসা করেছেন শহরের পশুপ্রেমীরা।

করোনা কালের প্রথম পর্যায়ে রামপুরহাট শহরে পথ কুকুরদের খাওয়ানোর বন্দোবস্ত করেছিল বিভিন্ন স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন এবং কিছু কুকুর প্রেমী মানুষজন।লকডাউন শিথিল হওয়ার পরেও শহরের পাঁচ মাথা মোড়,জিতেন্দ্রলাল পৌর মন্দির এলাকা,পুরসভা ভবনের সামনে পথ কুকুরদের খাওয়াতে দেখা গিয়েছে। কিন্তু এখন আবার সংক্রমণ বৃদ্ধিতে বাজার বন্ধ হচ্ছে বিকালের মধ্যে ফলে রাত্রে পথ কুকুরেরা অভুক্তই থাকছে। এই অবস্থায় পথ কুকুরদের রান্না করে খাবার খাওয়ানোর উদ্যোগী হয়েছে বীরভূম জেলা পুলিশ ।রামপুরহাট থানার আইসি ত্রিদিপ প্রামানিক জানান জেলার প্রধান শহরের করোনা সংক্রমণ বৃদ্ধিতে বাজার হাট ও দোকান খোলা রাখার ব্যাপারে বিধি-নিষেধ কার্যকর হয়েছে ।এর ফলে কুকুরদের অধিকাংশ রাতের খাবার পারছেন না ।ফলে জেলা পুলিশ সুপারের উদ্যোগে জেলার প্রধান প্রধান শহরে কুকুরদের রান্না করা খাবার দেওয়া হচ্ছে। জেলা পুলিশের এক আধিকারিক জানান রামপুরহাট শহরে পথ কুকুরদের রাতে রান্না করা খাবার দেওয়ার জন্য থানায় ২০ কেজি চাল ,৫কেজি ডাল সহ বিভিন্ন রকমের অনাজ মেশানো খাবার রান্না করা হচ্ছে ।রাত আটটার পরে শহরের বিভিন্ন প্রান্তে কুকুরদের খাওয়ানো হচ্ছে ।পুলিশের গাড়ি থামলেই কুকুরের দল গাড়ির সামনে জড়ো হয়ে পড়ে। রাতের খাবার পেয়ে লেজ নাড়তে নাড়তে তারা ফিরে যাই।

আরো পড়ুন