প্ল্যাটফর্ম টিকিটের দাম নিয়ে স্বস্তি, নয়া সিদ্ধান্ত ভারতীয় রেলের

প্ল্যাটফর্ম টিকিটের দাম নিয়ে স্বস্তি, নয়া সিদ্ধান্ত ভারতীয় রেলের

নিজস্ব প্রতিবেদন : করোনাকালে লকডাউন পরবর্তী সময়ে ধীরে ধীরে ট্রেন পরিষেবা চালু করা হলেও বহু ক্ষেত্রেই রদবদল আনে ভারতীয় রেল। ট্রেনের নামের সঙ্গে যোগ করা হয় স্পেশাল। এই স্পেশাল নাম যোগ হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে ভাড়া বৃদ্ধি পায় কয়েকগুণ। ট্রেনের টিকিটের ভাড়া বৃদ্ধি পাওয়ার পাশাপাশি প্ল্যাটফর্ম টিকিটের দামও কয়েকগুণ বাড়ানো হয় স্টেশনের ভিত্তিতে।

ট্রেনের টিকিটের দাম এবং প্লাটফর্ম টিকিটের দাম বৃদ্ধি করার কারণ হিসাবে ভারতীয় রেলের তরফ থেকে যে যুক্তি পেশ করা হয় তা হল, করোনাকালে যাতে দাম বৃদ্ধি করে যতটা সম্ভব ধীরে এড়ানো যায় এবং মানুষ যেন অযথা যাত্রা না করেন। তবে এবার পরিস্থিতি ধীরে ধীরে স্বাভাবিক হচ্ছে। দেশ করোনা মুক্ত হওয়ার পথে হাঁটছে।

এ মতো পরিস্থিতিতে ভারতীয় রেল যে সিদ্ধান্ত নিয়েছে সেই সকল সিদ্ধান্তের মধ্যে অন্যতম সিদ্ধান্ত হলো, ট্রেনের নামের সঙ্গে যে স্পেশাল তকমা যোগ হয়েছিল সেই স্পেশাল তকমা তুলে দেওয়া। এই স্পেশাল তকমা তুলে দেওয়ার ফলে টিকিটের দাম অনেকটাই কমে আগের জায়গায় ফিরে আসছে। এই খবর স্বাভাবিকভাবেই স্বস্তি দেশের বাসিন্দাদের কাছে।

একইভাবে প্লাটফর্ম টিকিটের ক্ষেত্রেও যে দাম বৃদ্ধি করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছিল তা এখন পুনরায় কমানোর সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। এর ফলে এখন করোনা পূর্ববর্তী সময়ের মতোই প্ল্যাটফর্মের টিকিটের দাম নেওয়া হবে। প্ল্যাটফর্ম টিকিটের দাম ১০ টাকা করা হচ্ছে। করোনাকালে এই টিকিটের দাম স্টেশনের ভিত্তিতে ৫০ টাকা পর্যন্ত বৃদ্ধি করা হয়েছিল।

রেলমন্ত্রীর তরফ থেকে ভারতের রেল পরিষেবাকে পুনরায় করোনা পূর্ববর্তী সময়ে ফিরিয়ে নিয়ে আসার এই ঘোষণায় স্বাভাবিকভাবেই স্বস্তি ফিরেছে আমজনতার মধ্যে। তবে এই রেল পরিষেবা সম্পূর্ণভাবে কবে থেকে একেবারে স্বাভাবিকের পথে হাঁটবে তা নিশ্চিতভাবে জানা না গেলেও খুব তাড়াতাড়ি তা বাস্তবায়িত হতে চলেছে এটাই জানা যাচ্ছে।

আরো পড়ুন