প্ল্যাস্টিক ও থার্মকল ব্যবহারে নিষেধাজ্ঞা রাজ্য সরকারের, নিষেধাজ্ঞা মানতে কড়া পদক্ষেপ রামপুরহাট পৌরসভার

প্ল্যাস্টিক ও থার্মকল ব্যবহারে নিষেধাজ্ঞা রাজ্য সরকারের, নিষেধাজ্ঞা মানতে কড়া পদক্ষেপ রামপুরহাট পৌরসভার

প্রীতম দাস রামপুরহাট :-

রামপুরহাট শহরকে দূষণমুক্ত শহর গড়ার লক্ষ‍্যে প্লাষ্টিক এবং থার্মকল ব‍্যবহারে রাস টানল রামপুরহাট পৌরসভা। প্লাষ্টিক এবং থার্মকল ব্যবহার না করার আবেদন নিয়ে শহরবাসীকে সচেতন করতে একটি পদযাত্রা বের হয় রামপুরহাট পৌরসভার পৌরকর্মীদের নিয়ে।

কলকাতা-সহ রাজ্য জুড়ে প্লাস্টিকের ব্যবহারে বর্ষায় ভোগান্তি বাড়ছে। প্লাস্টিকের কারণে রাস্তাঘাটে দীর্ঘক্ষণ আটকে থাকছে জল। সমস্যা হচ্ছে নিকাশি ব্যবস্থায়। এর পাশাপাশি পরিবেশ দূষণের বিষয়টিও রয়েছে।

রাজ্যে নিষিদ্ধ হতে চলেছে প্লাস্টিকের ব্যবহার। বর্ষার আগেই এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে রাজ্য সরকার। মঙ্গলবার বিধানসভার অধিবেশনে পরিবহণমন্ত্রী তথা কলকাতা পুরসভার মেয়র ফিরহাদ হাকিম জানান, এবার থেকে ৭৫ মাইক্রনের নিচে প্লাস্টিক ব্যবহার করা যাবে না। ১২৬টি প্লাস্টিক কারখানাকে নোটিস পাঠানো হয়েছে।

সেই মোতাবেক রামপুরহাট পৌরসভা উদ্যোগ নিয়ে প্রতিদিন শহরে মাইকিং করে দোকানদার এবং ক্রেতাদের সচেতন করে চলেছে। তবে যদিও রাজ্য সরকার ১ জুলাই থেকে প্লাস্টিক এবং থার্মকল ব্যবহারে নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে। কিন্তু রামপুরহাট পৌরসভার পক্ষ থেকে ১৫ ই জুলাই থেকে কার্যকর হবে বলে জানান পৌরপতি সৌমেন ভকত।

আগামী ১ জুলাই থেকে রাজ্যে ৭৫ মাইক্রনের প্লাস্টিক নিষিদ্ধ হওয়ার কথা। ইতিমধ্যেই দার্জিলিং এবং হাওড়ায় নিষিদ্ধ ৭৫ মাইক্রনের প্লাস্টিক। হাওড়ার নিকাশিতে প্লাস্টিক মাথাব্যথার কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে। উল্লেখ্য, ইতিমধ্যেই সিঙ্গল ইউসেজ প্লাস্টিকের ব্যবহার নিষিদ্ধ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে কেন্দ্রীয় সরকার।

প্লাস্টিকের প্যাকেট বা ক্যারিব্যাগের মাপ নির্দিষ্ট করে দিয়েছে কেন্দ্রীয় দূষণ নিয়ন্ত্রণ পর্ষদ। নির্দেশিকা জারি করে জানিয়ে দেওয়া হয় যে, ১ জুলাই থেকে ৭৫ মাইক্রনের নিচে সমস্ত প্লাস্টিকের ক্যারিব্যাগ, র‍্যাপার, ব্যবহার করা যাবে না। ৫০ মাইক্রনের নিচে প্লাস্টিকের কাপ, প্লেট, প্যাকেটও নিষিদ্ধ। এবার রাজ্য সরকারও তৎপর হল।  ১ জুলাই থেকে ৭৫ মাইক্রনের নিচে প্লাস্টিক ব্যবহার করলে বিক্রেতাকে ৫০০ টাকা এবং ক্রেতাকে ৫০ টাকা করে জরিমানা দিতে হবে বলে জানিয়েছে কেন্দ্রীয় দূষণ নিয়ন্ত্রণ বোর্ড।

আরো পড়ুন