ফের বজ্রাঘাতে প্রাণ হারালেন বীরভূমের এক কৃষক

ফের বজ্রাঘাতে প্রাণ হারালেন বীরভূমের এক কৃষক

লাল্টু : ঘনঘন বজ্রপাতের কারণে ফের একবার বজ্রাঘাতে প্রাণহানির ঘটনা ঘটলো বীরভূমে। এবারও প্রাণ হারালেন এক কৃষক। মাঠে চাষের কাজ করার সময় এমন দুর্ঘটনা ঘটে বলে জানা যাচ্ছে।

ঘটনাটি ঘটেছে বুধবার বীরভূমের দুবরাজপুর থানার অন্তর্গত বালিজুরি গ্রাম পঞ্চায়েতের বালিজুরি গ্রামে। ওই গ্রামের এক কৃষক নিমাই দাস (৫১) বুধবার বিকালে বৃষ্টি নামার আগেই মাঠে ধান চাষের জন্য লাঙ্গল দিতে যান। এরপর আর তিনি ফিরে আসেননি। দীর্ঘ সময় ফিরে আসেননি দেখে পরিবারের লোকজন খোঁজাখুঁজি শুরু করেন। সেই সময় রাত্রি আটটা নাগাদ তাকে পড়ে থাকতে দেখা যায় মাঠের ধারে।

সঙ্গে সঙ্গে তাকে উদ্ধার করে দুবরাজপুর গ্রামীণ হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়। কিন্তু হাসপাতালের চিকিৎসকরা তাকে দেখে মৃত বলে ঘোষণা করেন। বৃহস্পতিবার মৃত ওই ব্যক্তির দেহ সিউড়ি সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে ময়নাতদন্তের জন্য।

স্থানীয় বাসিন্দা লাল্টু দাস জানিয়েছেন, “গত কাল বিকাল বেলায় মাঠে যাওয়ার পর থেকেই বাড়ি না ফেরায় কারণে আমরা খুঁজতে বেরোলে তাকে মাঠের মধ্যে পড়ে থাকতে দেখি। আমাদের অনুমান বজ্রাঘাতের ফলে তার মৃত্যু হয়েছে।” ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে।

প্রসঙ্গত, চলতি বর্ষার মরশুমে ইতিমধ্যেই বীরভূমের বিভিন্ন এলাকায় বজ্রাঘাতের কারণে একাধিক মানুষের প্রাণহানি হয়েছে। সংখ্যাটা প্রায় চারের বেশি। মৃত এই সকল ব্যক্তিরা কেউ মাঠের কাজ করার সময় বজ্রাঘাতে মারা যান, কেউ আবার ফাঁকা জায়গায় আশ্রয় নিয়ে। বজ্রাঘাতে মৃত্যুর সংখ্যা বৃদ্ধি পাওয়ার সাথে সাথে প্রশাসনিকভাবে মানুষদের সচেতন করার জন্য নানান প্রচারও চালানো হচ্ছে।

আরো পড়ুন