ফের রিচার্জ প্ল্যানের দাম বাড়াতে পারে VI, শুনেই মাথায় হাত গ্রাহকদের

ফের রিচার্জ প্ল্যানের দাম বাড়াতে পারে VI, শুনেই মাথায় হাত গ্রাহকদের

নিজস্ব প্রতিবেদন : ২০১৯ সালে নিজেদের রিচার্জ প্ল্যানের দাম বৃদ্ধি করার পর ২০২০ সালের নভেম্বর মাসের শেষে নতুন করে দাম বৃদ্ধি করে দেশের প্রতিটি বেসরকারি টেলিকম সংস্থা। দু’বছরের মধ্যে পরপর দুবার দাম বৃদ্ধি করার কারণে স্বাভাবিকভাবেই অনেকটা খরচ বেড়েছে গ্রাহকদের। এমন পরিস্থিতিতে নতুন করে একটি খবর পাওয়া গিয়েছে, যা থেকে জানা যাচ্ছে ফের দাম বৃদ্ধি করতে পারে ভোডাফোন আইডিয়া।

দাম বৃদ্ধি করার এই খবরে ইতিমধ্যেই গ্রাহকদের মাথায় হাত পড়তে শুরু করেছে। পিটিআই-এর রিপোর্ট অনুযায়ী চলতি বছর নতুন করে আরও একবার দাম বৃদ্ধি করতে পারে এই টেলিকম সংস্থা বলে জানা যাচ্ছে। দাবি করা হচ্ছে সংস্থার এক শীর্ষস্তরের আধিকারিক এই বিষয়ে জানিয়েছেন। তার মতে ২০২২ সালেই শুল্ক সংশোধিত হতে পারে। তবে এই সিদ্ধান্ত নির্ভর করবে গত বছর যে মূল্য বৃদ্ধি করা হয়েছিল তার বাজার প্রতিক্রিয়ার উপর।

ভোডাফোন আইডিয়া এমডি তথা সিইও রবিন্দর তক্কর জানিয়েছেন, তাদের তরফ থেকে ৯৯ টাকার রিচার্জ প্ল্যানে সবচেয়ে বেশি বেনিফিট দেওয়া হচ্ছে। 4G পরিষেবার পরিপ্রেক্ষিতে এই খরচ খুব একটা ব্যয়বহুল নয়। যে কারণে এই বছর সামান্য মূল্যবৃদ্ধির পরিকল্পনা গ্রহণ করা হতে পারে।

গ্রাহক সংখ্যার পরিপ্রেক্ষিতে ভারতের সবচেয়ে জনপ্রিয় টেলিকম সংস্থা হল জিও। এর পরেই রয়েছে দেশের অন্যতম একটি টেলিকম সংস্থা এয়ারটেল এবং তার পরে রয়েছে ভোডাফোন আইডিয়া। এর পাশাপাশি দাম বৃদ্ধি করার পর ইতিমধ্যেই এই টেলিকম সংস্থার গ্রাহক সংখ্যা কমে দাঁড়িয়েছে ২৪.৭২ কোটি। যে কারণে তাদের পরিষেবার মাশুল ব্যয়বহুল হওয়া সত্ত্বেও ARPU ৫ শতাংশ কমে ১১৫ টাকায় দাঁড়িয়েছে। ২০২০-২১ সালের একই ত্রৈমাসিকে যা ছিল ১২১ টাকা।

তবে একাধিকবার মূল্য বৃদ্ধি করলেও Vi-এর সময়টা এখন ভালো যাচ্ছে না। এসবের পরেও সংস্থার তরফ থেকে জানানো হয়েছে, তাদের গত বছরের শেষ ত্রৈমাসিকে ৭,২৩০.৯ কোটি টাকা লোকসান হয়েছে। এর আগের বছর একই ত্রৈমাসিকে সংস্থার ক্ষতির পরিমাণ ছিল ৪,৫৩২.১ কোটি টাকা।

আরো পড়ুন