বাড়িতে পড়ে থাকা মৃতদেহ উদ্ধার করলেন, ডেপুটি ম্যাজিস্ট্রেট মনোতোষ মন্ডল

বাড়িতে পড়ে থাকা মৃতদেহ উদ্ধার করলেন, ডেপুটি ম্যাজিস্ট্রেট মনোতোষ মন্ডল

নিজস্ব সংবাদদাতা দক্ষিণ দিনাজপুর :-

করোনা আবহে আবারো প্রশাসনের মানবিক মুখ। দিনভর বাড়িতেই পড়ে ছিল বৃদ্ধার মৃতদেহ। করোনায় মৃত্যু হয়েছে সন্দেহে বাড়ির ত্রিসীমানায় আসেননি প্রতিবেশীরা। সোমবার ঘটনাটি ঘটেছে দক্ষিণ দিনাজপুর জেলার গঙ্গারামপুর ব্লকের দুই নম্বর বেলবাড়ি অঞ্চলে। শেষমেষ মানবিকতার হাত বাড়িয়ে দিয়ে দিন ভর বাড়িতে পড়ে থাকা মৃতদেহটি উদ্ধার করলেন ডেপুটি ম্যাজিস্ট্রেট। জানা যায় বছর 65 সাবিত্রী রায় জালালপুর এলাকার বাসিন্দা। দীর্ঘদিন ধরেই একাকী বাড়িতে থাকতেন তিনি। সরকারি ভাতা দিয়েই চলত তার সংসার। গত কয়েকদিন আগে থেকেই অসুস্থ হয়ে পড়েন ওই বৃদ্ধা শ্বাসকষ্টজনিত সমস্যার কথা শুনে বৃদ্ধাকে হাসপাতালে নিয়ে যেতে এগিয়ে আসেননি তার পারিপার্শ্বিক কোন প্রতিবেশী। সূত্রের খবর সোমবার সকালে বাড়ির বারান্দায় অত্যন্ত অসুস্থ হয়ে পরবর্তীতে প্রাণ হারান একাকী ওই বৃদ্ধা। যদিও করোনার ভয়ে তখনও এগিয়ে আসেনি কোন প্রতিবেশী। পরবর্তীতে প্রতিবেশীরা খবর দেন এলাকার পঞ্চায়েত প্রধান অনিমা দাসকে। তিনিই তৎক্ষণাৎ ডেপুটি ম্যাজিস্ট্রেট মনোতোষ মন্ডলকে বিষয়টি জানাতেই তৎপরতার সাথে ঘটনাস্থলে ছুটে আসেন ডেপুটি ম্যাজিস্ট্রেট মনোতোষ মন্ডল। পঞ্চায়েত প্রধান অনিমা দাস কে সাথে নিয়ে বিপদের দিনে মহাকুমার ডেপুটি ম্যাজিস্ট্রেট মনোতোষ মন্ডল নিজে দাঁড়িয়ে থেকে একাকী বৃদ্ধার মৃতদেহ উদ্ধার করেন। পাশাপাশি সরকারি নিয়ম মেনেই পরবর্তীতে ওই বৃদ্ধের মৃতদেহ অন্তিমসংস্কার এর ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে প্রশাসন সূত্রে খবর।
ডেপুটি ম্যাজিস্ট্রেটের এই মানবিক উদ্যোগকে সাধুবাদ জানিয়েছেন সকল দক্ষিণ দিনাজপুর জেলা বাসী।

আরো পড়ুন