বাবুল সুপ্রিয়র তৃণমূলে যোগ দেওয়ায় বিভেদ ভুলে প্রশংসায় পঞ্চমুখ অনুব্রত মণ্ডল

বাবুল সুপ্রিয়র তৃণমূলে যোগ দেওয়ায় বিভেদ ভুলে প্রশংসায় পঞ্চমুখ অনুব্রত মণ্ডল

নিজস্ব প্রতিবেদন : ‘রাজনীতিতে শেষ বলে কিছু নেই, প্রথম বলেও কিছু নেই। রাজনীতিতে অনেক কিছু বলতে হয় আবার উইথড্রও করে নিতে হয়’। প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয়র তৃণমূলে যোগ দেওয়ার পর এই ভাবেই প্রশংসায় পঞ্চমুখ হলেন বীরভূমের তৃণমূল জেলা সভাপতি অনুব্রত মণ্ডল।

প্রাক্তন কেন্দ্রীয় প্রতিমন্ত্রী তথা বিজেপি সাংসদ বাবুল সুপ্রিয় শনিবার সকলকে চমকে দিয়ে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের হাত ধরে তৃণমূলের নাম লেখালেন। বিজেপি থেকে রাজনীতিতে অবসর এবং তারপর তৃণমূলে যোগদানের বাবুল সুপ্রিয়র এই সফর ছিল সত্যিই রোমাঞ্চকর।

বিজেপির হাত ধরেই যে বাবুল সুপ্রিয়র রাজনীতিতে পা রাখা তার দল পরিবর্তনের ঘটনা একপ্রকার টেরই পেলো না গেরুয়া শিবির। যে কারণেই বিজেপি নেত্রী রূপা গাঙ্গুলী প্রথমে এই ঘটনাকে মানতে চান নি এবং তৃণমূলের অপপ্রচার বলে দাবি করেছেন। যদিও পরে পুরো বিষয়টি পরিষ্কার হয়ে যায়।

অন্যদিকে বাবুল সুপ্রিয়র সঙ্গে একাধিকবার তর্ক বিতর্কে জড়িয়ে যাওয়া বীরভূম জেলা তৃণমূল সভাপতি অনুব্রত মণ্ডলকে বাবুল সুপ্রিয়র তৃণমূলে যোগদানের পর সমস্ত বিভেদ ভুলে ভূয়সী প্রশংসা করতে দেখা যায়। প্রথম থেকে শেষ পর্যন্ত অনুব্রত মণ্ডল বাবুল সুপ্রিয়কে ‘ভালো ছেলে’ বলেই আখ্যা দেন।

অনুব্রত মণ্ডল এদিন বলেন, “দেখুন বলার কিছু নেই। বাবুল সুপ্রিয় সাংসদ এমপি। তিনি তৃণমূল কংগ্রেসে জয়েন করেছেন তাতে দলের ভালো হবে এইটুকু বলতে পারি এবং বাবুল সুপ্রিয় দলে আসাতে আমরা খুব খুশি।”

বাবুল সুপ্রিয়কে নিয়ে অনুব্রত মণ্ডলের নানান মন্তব্য প্রসঙ্গে খোদ অনুব্রত মণ্ডল বলেন, “দেখুন পিছনের কথা ভুলে যেতে হবে। রাজনীতিতে অনেক কথা হয় সে গুলোকে ধরলে হয় না। বাবুল সুপ্রিয় দলে এসেছে ওয়েলকাম। ভালো কাজ করবে, উন্নয়নের সঙ্গে থাকবে, মমতা ব্যানার্জির সাথী হবে।”

রাজনৈতিক বাকবিতণ্ডা নিয়ে অনুব্রত মণ্ডল বলেন, “সে সব পরের কথা। রাজনীতি করতে গেলে হয়। রাজনীতিতে শেষ বলে কিছু নাই, প্রথম বলে কিছু নাই। বাবুল সুপ্রিয় বাবুল সুপ্রিয়র জায়গাতে আছে। মমতা ব্যানার্জির সঙ্গে কাজ করবে। দলের ভালো হবে। মানুষের ভালো হবে। সবারই ভালো হবে। রাজনীতিতে অনেক কিছু বলতে হয়, আবার অনেক কিছু উইথড্র করে নিতে হয়।”

আরো পড়ুন