বিবাহ-বহির্ভূত সম্পর্কে স্বামী মনোজিৎ, নষ্ট হচ্ছে মান সম্মান, ডিভোর্স চাইলেন বৈশাখী

বিবাহ-বহির্ভূত সম্পর্কে স্বামী মনোজিৎ, নষ্ট হচ্ছে মান সম্মান, ডিভোর্স চাইলেন বৈশাখী

নিজস্ব প্রতিবেদন : বঙ্গে রাজনীতি হোক অথবা টলিউড, যে সকল ব্যক্তিরা প্রতিনিয়ত চর্চার কেন্দ্রবিন্দু হয়ে থাকেন তারা হলেন শ্রাবন্তী চ্যাটার্জী, নুসরত জাহান, যশ দাশগুপ্ত, আর এই দিকে রয়েছেন শোভন-বৈশাখী জুটি। সম্প্রতি কয়েকদিন ধরে নুসরত প্রসঙ্গ নিয়ে তোলপাড় সোশ্যাল মিডিয়া। এরই মাঝে ডিভোর্সের মামলা নিয়ে নতুন করে চর্চায় উঠে এসেছেন শ্রাবন্তী। আর এই দুই অভিনেত্রী যখন চর্চায় তখনই কাকতালীয়ভাবে চর্চায় উঠে এলেন আরও এক চর্চিত ব্যক্তিত্ব বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায়।

জানা যাচ্ছে, এবার বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায় তাঁর স্বামীর থেকে ডিভোর্স চেয়েছেন। তাঁর স্বামী মনোজিৎ মন্ডলের থেকে তার ডিভোর্স চাওয়ার মূলে রয়েছে মনোজিৎ বাবুর বিবাহ-বহির্ভূত সম্পর্ক। এমনটাই দাবি করেছেন বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায়। বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায়ের দাবি, মনোজিৎ মন্ডল বিবাহ-বহির্ভূত সম্পর্কে জড়িয়ে পড়েছেন। যে কারণে তিনি তার স্বামীকে মুক্তি দিতে চান।

গত মঙ্গলবার বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায় মনের কথা খুলে বলে জানান, গত তিন বছর ধরে তার স্বামী বিবাহ-বহির্ভূত সম্পর্কে জড়িয়ে রয়েছেন। তার স্বামী যার সাথে বিবাহ-বহির্ভূত সম্পর্কে জড়িয়ে রয়েছেন তার সাথে আবার মাঝে মাঝে বিদেশও যান। এমনকি যে মহিলার সাথে বিবাহ-বহির্ভূত সম্পর্কে মনোজিৎ মন্ডল জড়িয়ে পড়েছেন সেই মহিলার একটি মেয়েও রয়েছেন। আর এই গোটা বিষয়টি নিয়ে তার মন ভারাক্রান্ত বলে জানিয়েছেন বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায়।

মন ভারাক্রান্ত হওয়ার কারণে বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায় সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তাকে ডিভোর্স দেওয়ার। এই বিষয়ে বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায় আবার জানিয়েছেন, জোর করে কোনো সম্পর্ক ধরে রাখা বুদ্ধিমানের কাজ নয়। যে কারণে তিনি তেমনটা চান না। এর পরিপ্রেক্ষিতে তিনি তার মান সম্মান নিয়েও নানান দাবি করেছেন।

এই মান-সম্মান প্রসঙ্গে বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায় দাবি করেছেন, “বাকিরা যখন বলে, আমার স্বামী অন্য কারও সঙ্গে ঘুরে বেড়াচ্ছে, সেটা শুনতে ভাল লাগে না। আমারও তো মান-সম্মান আছে।” যে কারনেই তিনি তাদের এই বিবাহিত সম্পর্কের ইতি টানতে চাইছেন।

আরো পড়ুন