বিশ্বভারতীতে লাগাতার বিক্ষোভ এসএফআই ছাত্র সংগঠনের ফ্রী বৃদ্ধী সাসপেন্ড প্রত্যাহারে

বিশ্বভারতীতে লাগাতার বিক্ষোভ এসএফআই ছাত্র সংগঠনের ফ্রী বৃদ্ধী সাসপেন্ড প্রত্যাহারে

বোলপুর- ৫ জুলাই: বিশ্বভারতীর উপাচার্য বিদুৎ চক্রবর্তী একাধিক। অভিযোগ সহ বিভিন্ন দাবি দফা নিয়ে বিশ্বভারতীর কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের “বলকা “গেটের সামনে অবস্থান বিক্ষোভ ।
এই বিক্ষোভ সামিল হয়েছে ভারতের এসএফআই ছাত্র সংগঠন সাধারণ সম্পাদক মূয়ক্ষ বিশ্বাস ও বীরভূম জেলার এসএফআই নেতৃত্ব ও বিশ্বভারতীর এসএফআই ছাত্র সংগঠন।
তাদের বেশ কয়েকটি দাবি দফা রয়েছে। তার মধ্যে উল্লেখযোগ্য গুলি। বিশ্বভারতীর তিন ছাত্র সাসপেন্ড সহ অধ্যাপক দের টার্মিনেট প্রত্যাহার। গবেষক ছাত্র ছাত্রীদের ফ্রী কমানো।
শিক্ষাঙ্গন রাজনৈতিক করণ মুক্ত। একই সাথে উপাচার্যের পদত্যাগ চায়ছে। সারা ভারত
এসএফআই ছাত্র সংগঠন নেতৃত্ব মূয়ক্ষ বিশ্বাস জানান যে। দীর্ঘদিন ধরে কেন্দ্রীয় বিদ্যালয়ে উপাচার্য রাজনৈতিক করণ উদ্যোগী হয়ে। ছাত্র ছাত্রীদের উপর সহ আধ্যপক দের বিরুদ্ধে অগণতান্ত্রিক পদ্ধতিতে পদক্ষেপ। এছাড়াও এখন গোটা দেশ জুড়ে অর্থিক আনাটন সময় হঠাৎ করে পিএইচডি ও এনফিল্ড দের অত্যধিক মাত্র তে ফ্রী বৃদ্ধি ।এই সমস্ত ঘটনা জন্য উপাচার্য বিরুদ্ধে সরব হয়ে এসএফআই ছাত্র সংগঠন অবস্থান বিক্ষোভ করেছে। যতদিন না উপাচার্য বিশ্বভারতীর ছাত্র-ছাত্রীদের সুবিধা স্বার্থে ফ্রী ও সাসপেণ্ড প্রত্যাহার না করা হচ্ছে এই আন্দোলন অব্যাহত থাকবে।
এমনিতেই আমাদের লাগাতার আন্দোলন চলছে বিভিন্ন ৪ দিন ধরে।
বিশ্বভারতীর অনান্য পাঠরত সধারণ ছাত্র ছাত্রীরা এসএফআই আন্দোলন কে সমর্থন করেছে। ও স্বর্তস্ফুর্ত ভাবে সামিল হচ্ছে অবস্থান বিক্ষোভ ।
তবে শুরুর দিকে আজও বিশ্বভারতীর নিরাপত্তা রক্ষীদের সাথে অবস্থান বিক্ষোভ কেন্দ্র করে গেটে ফেস্টুন লাগানো সময়। কিছুক্ষণ বচসা বাঁধে আন্দোলনরত ছাত্র সংগঠন সঙ্গে।
অপরদিক বিশ্বভারতীর কতৃপক্ষ তরফ কোনো রকম উত্তর মেলেনি এই অবস্থান বিক্ষোভ কেন্দ্র করে।

আরো পড়ুন