মুষলধারে বৃষ্টিতে নাজেহাল বীরভূম, একাধিক জায়গায় হাঁটু সমান জল

মুষলধারে বৃষ্টিতে নাজেহাল বীরভূম, একাধিক জায়গায় হাঁটু সমান জল

দিন কয়েক ধরেই হাওয়া অফিসের তরফ থেকে নিম্নচাপের পূর্বাভাস দেওয়া হচ্ছিল। তবে এর প্রভাব এতটা পড়বে তা হয়তো কেউ টের পাননি। বৃহস্পতিবার থেকে মুষলধারে বৃষ্টি শুরু হয়েছে এই নিম্নচাপের কারণে। আর এই মুষলধারে বৃষ্টির কারণে জলে জলমগ্ন বীরভূমের বিভিন্ন এলাকা। একাধিক জায়গায় লক্ষ্য করা যাচ্ছে হাঁটু সমান জল।

বৃহস্পতিবার থেকে শুরু হওয়া এই বৃষ্টির ফলে শুক্রবার সকাল থেকেই লক্ষ্য করা গিয়েছে বীরভূমের দুবরাজপুর ব্লকের অন্তর্গত একাধিক এলাকা জলমগ্ন। বৃষ্টিপাতের কারণে দুবরাজপুর ব্লকের সদাইপুর থানার রেঙ্গুনি গ্রাম জলমগ্ন হয়ে পড়েছে, জলে ডুবেছে বালিজুরি গ্রাম পঞ্চায়েতের বেলসাড়া গ্রাম থেকে মেজেগ্রাম যাওয়ার রাস্তায় থাকা শাল নদীর উপর কজওয়ে। এছাড়াও শাল নদীর জল বেলসাড়া ও কুলেকুড়ি গ্রাম যাওয়ার পিচ রাস্তার উপর উঠে পড়েছে।

ভাসা ব্রিজ, কজওয়ে, চাষ জমি জলের তলায় গিয়েছে সিউড়ি ২ নম্বর ব্লকের কোমা গ্রাম পঞ্চায়েতের বিভিন্ন এলাকায়। লবাগান, গজালপুরের মতো একাধিক গ্রাম বর্তমানে সিউড়ির সাথে সোজা পথে যোগাযোগ হারিয়েছে। পাশাপাশি বনসংখ্যা গ্রাম পঞ্চায়েতের তালিতপুর সহ বিভিন্ন এলাকার চাষ জমি জলের তলায়। স্বাভাবিকভাবেই চাষীদের মাথায় হাত পড়তে শুরু করেছে ফসল নিয়ে।

অন্যদিকে লাগাতার এই বৃষ্টির কারণে জলমগ্ন হয়ে পড়েছে বোলপুর পৌরসভার ইন্দিরাপল্লী এবং উদয়ন পল্লী। পৌরসভার এই দুই এলাকায় হাঁটু সমান জল। অধিকাংশ বাড়িতেই জল ঢুকে গিয়েছে বলে জানা যাচ্ছে।

এর পাশাপাশি বেশকিছু এলাকায় কাঁচা বাড়ি ভেঙ্গে পড়ার খবরও পাওয়া যাচ্ছে। ইতিমধ্যেই কাঁচা বাড়ি ভেঙে পড়েছে লাভপুরের ইন্দাসে, সিউড়ি ২ নং ব্লকের ধইটে গ্রামে। লাভপুরের ঘটনায় দুই বৃদ্ধ দম্পতি গুরুতর আহত অবস্থায় হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। মোটের উপর একদিনের এই বৃষ্টিতেই ভোগান্তি বীরভূম জুড়ে।

আরো পড়ুন