রাজ্যের প্রতিটি মদের দোকানে বসবে এই সিস্টেম, নয়া উদ্যোগ রাজ্য সরকারের

রাজ্যের প্রতিটি মদের দোকানে বসবে এই সিস্টেম, নয়া উদ্যোগ রাজ্য সরকারের

নিজস্ব প্রতিবেদন : গতবছর রাজ্যে রেকর্ড পরিমাণ বিক্রি হয়েছে মদ। এই মদ থেকে আগত কর রাজ্যের কোষাগারকে পরিপূর্ণ করেছে। এবার এই কোষাগার পরিপূর্ণ হওয়ার পাশাপাশি মদ বিক্রির ক্ষেত্রে যাতে কর ফাঁকি দেওয়া সম্ভব না হয় এবং ক্রেতারা যাতে না ঠকেন তার জন্য রাজ্য সরকার নতুন একটি উদ্যোগ নিতে চলেছে। নতুন বছরেই এই উদ্যোগ সম্পূর্ণ হবে বলে জানা যাচ্ছে।

লক্ষ্য করা যায় মদের দোকানে লাইনে দাঁড়িয়ে মদ কেনার পর বহু ক্রেতাই দোকান থেকে ক্যাশ মেমো বা বিল নেন না। আবার অনেক ক্ষেত্রেই দোকানদাররা তা দেন না। এই সমস্যা দূর করতেই এবার রাজ্য আবগারি দপ্তর নতুন একটি উদ্যোগ নিয়েছে। জানা যাচ্ছে এমন একটি সিস্টেম বসতে চলেছে যাতে বেচাকেনার হিসেব স্পষ্ট হয়ে যাবে।

সূত্র মারফত জানা যাচ্ছে, চলতি বছর পশ্চিমবঙ্গের প্রতিটি লাইসেন্সপ্রাপ্ত মদের দোকানে বসবে পয়েন্ট অফ সেল অর্থাৎ পিওএস। ইতিমধ্যেই এই সিস্টেম বসানোর জন্য আগ্রহী সংস্থাগুলি থেকে দরপত্র চেয়েছে রাজ্য আবগারি দপ্তর, এমনটাও জানা যাচ্ছে। এই বিষয়ে যে সকল সমস্যাগুলি আগ্রহী তারা আগামী ২৪ জানুয়ারির মধ্যে আবেদনপত্র জমা দিতে পারবে।

মদের দোকানের ক্ষেত্রে যেমন প্যানেলভুক্ত সংস্থা বেছে নিয়োগ করা হবে ঠিক তেমনি পানশালাগুলির ক্ষেত্রেও একই ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। এই পদ্ধতি চালু হয়ে যাওয়ার পর ক্যাশ মেমোতে উল্লেখ থাকবে দোকানের নাম, স্থান, দিন, ব্র্যান্ডের নাম এবং দাম। কিন্তু কেন এমন পদক্ষেপের পথে হাঁটছে আবগারি দপ্তর?

এই বিষয়ে আবগারি দপ্তরের তরফ থেকে জানানো হয়েছে, এই ব্যবস্থা শুরু হলে যেমন কেনাবেচার ক্ষেত্রে স্বচ্ছতা থাকবে ঠিক তেমনি বহু গ্রাহক উপকৃত হবেন। বহু গ্রাহক মদের দোকানে এসে মদ কেনার সময় ক্রেডিট কার্ড অথবা ডেবিট কার্ডের মাধ্যমে পেমেন্ট করতে চান। কিন্তু দোকানে সেই পরিষেবা না থাকার কারণে তা হয়ে উঠতে পারে না। এই সমস্যার ক্ষেত্রে পস সুরাহা হয়ে দাঁড়াবে।

আরো পড়ুন