রাজ্যে বাড়লো করোনা বিধিনিষেধ, এখনও বন্ধ থাকবে এই সকল পরিষেবা

রাজ্যে বাড়লো করোনা বিধিনিষেধ, এখনও বন্ধ থাকবে এই সকল পরিষেবা

নিজস্ব প্রতিবেদন : ১৫ সেপ্টেম্বর করোনা বিধিনিষেধ শেষ হওয়ার আগেই পুনরায় এই বিধিনিষেধ বৃদ্ধি করা হলো রাজ্য সরকারের তরফ থেকে। রাজ্য সরকারের তরফ থেকে বুধবার এই বিধিনিষেধ আরও ১৫ দিন বৃদ্ধি করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। নতুন সিদ্ধান্ত অনুযায়ী এই বিধিনিষেধ চলবে আগামী ৩০ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত।

রাজ্যে করোনার দ্বিতীয় ঢেউ আছড়ে পড়ার পর রাজ্য সরকার তাকে প্রতিহত করতে মে মাস থেকে উঠেপড়ে লাগে। বন্ধ করে দেওয়া হয় গণপরিবহণ, জিম, রেস্তরাঁ, পার্ক, সিনেমা হল ইত্যাদি। একাধিক পরিষেবা প্রদানের ক্ষেত্রে সময়ের লাগাম টানা হয়। তবে ধীরে ধীরে পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে এই সকল ক্ষেত্রে স্বাস্থ্যবিধি মেনে পরিষেবা দেওয়ার ক্ষেত্রে ছাড় দেওয়া হয়েছে।

তবে বুধবার রাজ্য সরকার পুনরায় এই বিধি-নিষেধ বৃদ্ধি করায় অধিকাংশ ক্ষেত্র খুলে গেলেও এখনো বন্ধ থাকছে বেশ কিছু ক্ষেত্র। যেমন রাজ্যে চালু হচ্ছে না লোকাল ট্রেন পরিষেবা, খোলা হবে না স্কুল কলেজ এবং শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। পাশাপাশি বজায় থাকছে রাত্রি এগারোটা থেকে ভোর পাঁচটা পর্যন্ত নাইট কার্ফু। ৩০ শে সেপ্টেম্বর পর্যন্ত বন্ধ থাকবে এই সকল ক্ষেত্র।

তবে বিশেষ উল্লেখযোগ্য বিষয় হলো, এদিনের এই নির্দেশিকায় রাজ্য সরকারের তরফ থেকে লোকাল ট্রেন সম্পর্কিত কোন উল্লেখই করা হয়নি। আর এতেই স্পষ্ট হয়ে যাচ্ছে অন্ততপক্ষে ৩০ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত রাজ্যে কোন ভাবেই লোকাল ট্রেনের চাকা গড়াবে না। তবে লোকাল ট্রেন না চললেও স্টাফ স্পেশাল ট্রেন যেমন চলছে তেমনি চলবে।

এর পাশাপাশি এদিনের এই নির্দেশিকা আবারও স্পষ্ট করে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে, বাধ্যতামূলকভাবে ব্যবহার করতে হবে মাস্ক, স্যানিটাইজার। প্রত্যেককে বাধ্যতামূলকভাবে মেনে চলতে হবে সামাজিক দূরত্ব বিধি। পাশাপাশি কর্মীদের ওয়ার্ক ফ্রম হোমের ক্ষেত্রে জোর দিতে বলা হয়েছে।

তবে এক্ষেত্রে উল্লেখ্য, পরিবহণ ব্যবস্থার ক্ষেত্রে লোকাল ট্রেন চালু না হলেও অন্যান্য অধিকাংশ গণপরিবহনই স্বাভাবিক। পাশাপাশি ছোটদের কথা মাথায় রেখে খোলা হচ্ছে না স্কুল কলেজ এবং অন্যান্য শিক্ষা প্রতিষ্ঠান।

আরো পড়ুন