রামপুরহাটের বগটুই কাণ্ড, ভাদু শেখ খুনের তদন্ত নিয়ে নয়া নির্দেশ হাইকোর্টের

রামপুরহাটের বগটুই কাণ্ড, ভাদু শেখ খুনের তদন্ত নিয়ে নয়া নির্দেশ হাইকোর্টের

নিজস্ব প্রতিবেদন : গত মার্চ মাসের ২১ তারিখ ভয়ঙ্কর ঘটনা যায় বীরভূমের রামপুরহাট থানার অন্তর্গত বগটুই গ্রামে। ওই দিন রাতে দুষ্কৃতীদের বোমার আঘাতে নিহত হন বরশাল গ্রামের উপপ্রধান ভাদু শেখ। এরপরই প্রতিহিংসার আগুনে জ্বলতে শুরু করে বগটুই গ্রাম। যে আগুনে জ্বলে পুড়ে মৃত্যু হয় ৯ জনের।

প্রতিহিংসার আগুনে জ্বলে একের পর এক প্রাণের মৃত্যুর ঘটনায় কলকাতা হাইকোর্ট ইতিমধ্যেই সিবিআই তদন্তের নির্দেশ দিয়েছে। সেই ঘটনার তদন্ত করছে সিবিআই আধিকারিকরা। অন্যদিকে ভাদু শেখ খুনের ঘটনার তদন্ত নিয়েও এবার নয়া নির্দেশ দিল কলকাতা হাইকোর্ট।

শুক্রবার কলকাতা হাইকোর্ট বরশাল গ্রামের উপপ্রধান ভাদু শেখ খুনের তদন্তভার তুলে দিল সিবিআইয়ের হাতে। এই নির্দেশের ফলে বগটুই হত্যাকাণ্ডের তদন্তের পাশাপাশি ভাদু শেখ খুনের তদন্তও করবেন সিবিআই আধিকারিকরা। বগটুই হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে ভাদু শেখ খুনের সম্পর্কেও জড়িয়ে রয়েছে, এরই পরিপ্রেক্ষিতে এই নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

তৃণমূল নেতা তথা বরশাল গ্রামের উপপ্রধান ভাদু শেখ খুন হওয়ার পর থেকেই তার স্ত্রী সিবিআই তদন্তের দাবি করেছিলেন। তবে এপ্রিল মাসের ৪ তারিখ তার হাতে রাজ্য সরকারের তরফ থেকে চাকরির নিয়োগপত্র তুলে দেওয়া হয়। এর পরেই তিনি সিবিআই তদন্ত দরকার নেই বলে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে জানান। তবে এই মামলার তদন্তভার সিবিআইয়ের হাতে দেওয়ার জন্য বৃহস্পতিবার আদালতে মামলা করেন আইনজীবী কৌস্তভি বাগচী। এরপর এই শুক্রবার এই মামলার তদন্তভার তুলে দেওয়া হল সিবিআইয়ের হাতে।

মামলার তদন্তভার সিবিআইয়ের হাতে দেওয়ার পাশাপাশি প্রধান বিচারপতি জানান, ‘ভাদু শেখ খুনের ঘটনা এবং বগটুই গ্রামে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা পরস্পর সম্পর্কযুক্ত। ঘটনার সত্য সন্ধানে ও প্রকৃত দোষীদের খুঁজে বের করার জন্য এই মামলার তদন্ত করুক সিবিআই।’

আরো পড়ুন