রামপুরহাটে আটক গরু বোঝাই লরি, তদন্তে পুলিশ

রামপুরহাটে আটক গরু বোঝাই লরি, তদন্তে পুলিশ

প্রীতম দাস রামপুরহাট :-

আবারও গরু পাচারের অভিযোগ উঠল বীরভূম জেলায়। সোমবার গরু পাচারের অভিযোগে চার গরু ব্যবসায়ীকে আটক করা হয়েছে বীরভূমের রামপুরহাটে। পুলিশ ৭ লরি আটক করেছে। উদ্ধার করা হয়েছে ১৩৭ টির গরু।

মঙ্গলবার নাকা তল্লাশির সময় রামপুরহাট থানার দুমকা-রামপুরহাটে রাজ্য সড়কে গরু বোঝাই ৭ লরি আটক করে পুলিশ। তাঁদের কাছে ছিল মোট ১৩৭ টি গরু। আটক করা হয় মোট চারজন গরু ব্যবসায়ীকেও। পুলিশ জিজ্ঞাসাবাদ করে জানতে পারে, ওই গরুগুলি কেনা হয়েছিল ঝাড়খণ্ডের সারাসডাঙা পশুহাট থেকে। ধৃত ব্যবসায়ীর দাবী, তাঁদের বাড়ি ধৃতের বাড়ি বিহারের পাটনা জেলার হাতিয়াতোলা গ্রামে। তবে ঝাড়খণ্ডের সারাসডাঙা পশুহাট থেকে গরুগুলি কিনে মুর্শিদাবাদ নিয়ে যাওয়া হচ্ছিল। গরুগুলি বৈধ ভাবেই কেনা হয়েছিল দাবী করেন ধৃতেরা।

যদিও পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, ধৃত ব্যবসায়ীরা কোনও বৈধ কাগজপত্রই দেখাতে পারেননি। পুলিশের অনুমান গরুগুলি মুর্শিদাবাদ থেকে বাংলাদেশে পাচার করার উদ্দেশ্যেই তারা নিয়ে যাচ্ছিল। তবে তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করে আন্তর্জাতিক কোনো পাচারচক্রের যোগ রয়েছে কিনা তা খতিয়ে দেখতে তদন্তে নেমেছে রামপুরহাট থানার পুলিশ।

আরো পড়ুন