রামপুরহাটে শুরু হচ্ছে “গৌরি সাজে পালকি” নামে এক বিরাট প্রদর্শনী

রামপুরহাটে শুরু হচ্ছে “গৌরি সাজে পালকি” নামে এক বিরাট প্রদর্শনী

প্রীতম দাস রামপুরহাট :-

আর কটা দিন। তারপরেই আসছে বাঙালির সবথেকে বড় উৎসব দুর্গোৎসব। আর এই উৎসব ঘিরেই চোখে পড়ে বাঙালীর বাধভাঙ্গা উচ্ছ্বাস। উৎসব মানেই কেনাকাটা, ঘোরাঘুরি আর সাথে খাওয়া-দাওয়া আছেই। সুতরাং বলা যেতেই পারে বাংলা মানেই উৎসব আর উৎসব মানেই বাঙালী।

তবে এবার বীরভূমের রামপুরহাটে পুজোর আগে উৎসবপ্রিয় বাঙালির উৎসবের দিনগুলি আরও উজ্জ্বল ও বর্ণময় করে তুলতে শুরু হচ্ছে “গৌরি সাজে পালকি” নামে এক বিরাট প্রদর্শনী। প্রদর্শনীটি আয়োজনে রয়েছে শহরেরই “পালকি” নামে একটি সংস্থা। তবে কি থাকছে এই প্রদর্শনীতে? জানা গিয়েছে এই প্রদর্শনীতে থাকছে, বাড়ি সাজানোর জন্য Macrame collection, গোপাল ঠাকুরের পোশাক, রূপোর গহনা, হেয়ার অ্যাকসেস্যারিস (hair accessories), এছাড়াও শান্তিনিকেতন-বোলপুরের কাঁথা স্টিচ এর সম্ভার। হাতের তৈরি গয়না থেকে ওয়েস্টার্ন পোশাকের বিপুল সম্ভার। সানগ্লাস, বেল্ট থেকে ব্যাগের রকমারি সব কালেকশন। এছাড়াও বিভিন্ন ধরনের শাড়ি,গহনা, পার্লার এর সার্ভিস সব পাবে এক ছাদের তলায়। যা দিয়ে একজন নারী নিজেকে নবরূপে সেজে উঠতে পারে। পাশাপাশি মিলবে ঘর সাজানোর সামগ্রী এই প্রদর্শনী থেকেই।

সাজগোজ না হয় পাওয়া গেল। কিন্তু ভোজনপ্রিয় বাঙালী কি নিরাশ হবেন? উদ্যোক্তা জানাচ্ছেন, শাড়ি,গয়নাগাটির পর এই প্রদর্শনীতে মিলবে নানান ধরনের ও নানান স্বাদের খাবারও। থাকছে বাড়ির তৈরি আচার, গজা, মালপোয়া, নারকেল নাড়ু, নিমকি, গন্ধরাজ মোমো, বিরিয়ানি, সাউথ ইন্ডিয়ান ফুড। প্রদর্শনী মানেই যে শুধু চোখে দেখা, তা নয়। পছন্দ হলে জিনিসটি কেনার সুযোগ পাবেন আগত দর্শকেরা। আগামী ১০ ও ১১ সেপ্টেম্বর রামপুরহাটের সানঘাটায় মুখার্জি অনুষ্ঠান ভবনে সকাল ১১ টা থেকে শুরু হবে এই প্রদর্শনী, চলবে রাত্রি ৯ টা পর্যন্ত। তবে প্রদর্শনীতে চমকপ্রদ সব অফার। উদ্যোক্তারা জানাচ্ছেন, Happy Hours থাকছে দুপুর ১২ থেকে বিকেল ৪টা অবদি। এই সময়ের মধ্যে এলে ক্রেতারা তাদের কেনাকাটায় পাবেন আরও কিছু বিশেষ ছাড়। আর প্রদর্শনীতে ১০০০ টাকার কেনাকাটায় থাকছে লাকি কুপন। যেটার খেলা হবে আগামী ১১ সেপ্টেম্বর, বিকেল ৫ টায়। লাকি ড্র এর মাধ্যমে বিজয়ী দের নাম ঘোষণা করা হবে।

পালকির সদস্যা স্মৃতি দাস চৌধুরী, ইন্দ্রানী মণ্ডল ও রিয়া রজক বলেন, এই প্রথম রামপুরহাট শহরে এক ছাদের তলায় অনলাইনে বিক্রিত জিনিসপত্র সরাসরি অফলাইনে কেনার সুবর্ণ সুযোগ। শাড়ি গয়নার পাশাপাশি মিলবে রকমারি সুস্বাদু বিভিন্ন রকম ফাস্টফুড আইটেম। তবে প্রদর্শনীটা হচ্ছে শীততাপ নিয়ন্ত্রিত ঘরে। যা আরামপ্রিয় বাঙালির কাছে বেশ সুখেরই হবে।

আরো পড়ুন