সততার অনন্য নজির দিল বীরভূমের ব্যবসায়ী, কুড়িয়ে পাওয়া চার লক্ষাধিক টাকা দিল ফেরত

সততার অনন্য নজির দিল বীরভূমের ব্যবসায়ী, কুড়িয়ে পাওয়া চার লক্ষাধিক টাকা দিল ফেরত

কথায় আছে সততার ওপরে অন্য কিছু হতে পারে না। মানুষের মধ্যে যখন অর্থ রোজগারের অথবা অর্থ পাওয়ার লোভ চিরন্তন সেই সময় বেশ কিছু সৎ মানুষ এমন অনন্য নজির সৃষ্টি করে চলেছেন। ঠিক তেমনটাই করলেন বীরভূমের রামপুরহাটের এক হোটেল ব্যবসায়ী। ওই হোটেল ব্যবসায়ী কুড়িয়ে পাওয়া সাড়ে চার লক্ষ টাকার বেশি ফিরিয়ে দিলেন ওই টাকার আসল মালিককে।

জানা গিয়েছে, কলকাতার বাসিন্দা গুঠকা ব্যবসায়ী প্রদীপ মিশ্র ব্যবসার কাজে বীরভূমে আসেন। তিনি অধিকাংশ সময় উঠতেন ১৪ নম্বর জাতীয় সড়কের ধারে রামপুরহাট মাড়গ্রাম মোড় সংলগ্ন একটি বেসরকারি হোটেলে। গত রবিবার সকালে হোটেল ছেড়ে যাওয়ার সময় একটি প্লাস্টিকে জড়িয়ে ৪,৪৮,৫০২ টাকা হোটেলের বাইরে একটি চেয়ারের উপর ভুল করে রেখে রায়গঞ্জ চলে যান। কিন্তু হোটেল মালিক রবীন্দ্রনাথ মণ্ডল সেই প্যাকেট সযত্নে নিজের হেফাজতে রাখেন। বিকেলের দিকে সেই প্যাকেট খুলে দেখেন কয়েকটি ৫০০ টাকার বান্ডিল। এরপর ফের প্লাস্টিক জড়িয়ে রেখে সিসিটিভি ক্যামেরায় নজর রাখতে শুরু করেন।

দেখতে পান সকাল ১০ টার পর ওই টাকার বান্ডিল চেয়ারে অসাবধান বসত ফেলে গিয়েছিলেন প্রদীপ মিশ্র। এরপরেই লজ ব্যবসায়ী যোগাযোগ করেন প্রদীপবাবুর সঙ্গে। মঙ্গলবার ফিরিয়ে দেওয়া হল তার টাকা।

একসাথে এতগুলো টাকা হারিয়ে যাওয়ার পর তার ফিরে পেয়ে স্বাভাবিকভাবেই খুশি ওই ব্যবসায়ী প্রদীপ মিশ্র। পাশাপাশি বীরভূমের ওই হোটেল ব্যবসায়ী যেভাবে তার সততার প্রমান দিলেন তা অনন্য নজির বলেই মনে করা হচ্ছে।

আরো পড়ুন