সাঁইথিয়া থানার উদ্যোগে বিনামূল্যে চক্ষু পরীক্ষা শিবির

সাঁইথিয়া থানার উদ্যোগে বিনামূল্যে চক্ষু পরীক্ষা শিবির

প্রীতম দাস বীরভূম :-

রাজ্যের সবার জন্য বিনামূল্যে চোখের চিকিৎসার ব্যবস্থা করতে বিশেষ উদ্যোগী হতে দেখা গিয়েছে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে। বিশেষত গ্রামীণ, প্রান্তিক এলাকার দরিদ্রদের মানুষদের সাহায্যের লক্ষ্যেই এই প্র‍য়াস রাজ্যসরকারের। বয়স বাড়লে চোখের সমস্যা দেখা যায় প্রতিটি মানুষের, তবে অনেকেই অর্থের অভাবে চোখের চিকিৎসাটুকু করতে পারেন না। তবে এবার আর অর্থাভাবে আটকাবে চোখের চিকিৎসা। কারণ এবার থেকে বিনামূল্যে চোখের অপারেশন সহ সমস্থ রকম ব্যবস্থা করবে বীরভূম জেলা পুলিশ। জেলা পুলিশের এমন উদ্যোগকে সাধুবাদ জানিয়েছেন অনেকেই।

রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের অনুপ্রেরণায় ও বীরভূম জেলা পুলিশের উদ্যোগে এবং সাঁইথিয়া থানার ব্যবস্থাপনায় বিনামূল্যে চক্ষু পরীক্ষা শিবিরের আয়োজন করা হয় এদিন শহর এলাকায়। কলকাতার স্বনামধন্য চক্ষু চিকিৎসালয় শংকর নেত্রালয়ের সহযোগিতায় সেখান থেকে আগত বিশিষ্ট চক্ষু চিকিৎসক উপস্থিত ছিলেন আজকের শিবিরে। পাশাপাশি এই চক্ষু পরীক্ষা শিবিরে এলাকার দুঃস্থ দরিদ্র মানুষদের চক্ষু পরীক্ষা করা হয়।

সাঁইথিয়া থানাতে একটি অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে এই চক্ষু পরীক্ষা শিবিরের শুভ উদ্বোধন করা হয়। প্রদীপ প্রজ্জ্বলনের মধ্য দিয়ে শিবিরের শুভ উদ্বোধন করেন বীরভূম জেলা পুলিশ সুপার নগেন্দ্র নাথ ত্রিপাঠী। এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন এলাকার বিধায়ক নিলাবতী সাহা, পুরসভার চেয়ারম্যান বিপ্লব দত্ত, সার্কেল ইন্সপেক্টর কিশোর সিনহা চৌধুরী সহ পুলিশের অন্যান্য আধিকারিক ও বিশিষ্টজনেরা। পুলিশ সুপার নাগেন্দ্র নাথ ত্রিপাঠী বলেন, ‘মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের দুয়ারে সরকার শিবির থেকে এই অনুপ্রেরণা পেয়েছি, যে পুলিশ যদি মানুষের দুয়ারে পৌঁছাতে পারে তাহলেও সেটা একটা ভালো দিক খুলে যাবে মানুষের সঙ্গে জনসংযোগ বাড়ানোর এবং পরিষেবা প্রদানের ক্ষেত্রে।

এদিনের শিবিরে শহর এবং শহর সংলগ্ন এলাকার প্রায় ২১৬ জন ব্যক্তির চক্ষু পরীক্ষা করা হয়। তাদের মধ্যে ৪৫ জন ব্যক্তি চোখের অপারেশন এবং ১৪৩ জন চশমা বিনামূল্যে প্রদান করা হয় বলে জানিয়েছে শংকর নেত্রালয় এবং সাঁইথিয়া থানা।

আরো পড়ুন