সাত জেলায় ভারী বৃষ্টির পূর্বাভাস, কখন পরিষ্কার হবে আকাশ, জানালো হওয়া অফিস

সাত জেলায় ভারী বৃষ্টির পূর্বাভাস, কখন পরিষ্কার হবে আকাশ, জানালো হওয়া অফিস

নিজস্ব প্রতিবেদন : শীতের মাঝেই হঠাৎ বঙ্গোপসাগরে ঘনীভূত হওয়ায় নিম্নচাপের কারণে রাজ্যজুড়ে শুরু হয়েছে হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টি। তবে এরই পাশাপাশি হাওয়া অফিসের তরফ থেকে ভারী বৃষ্টির পূর্বাভাস দেওয়া হল রাজ্যের সাত জেলায়। আগামী ২৪ ঘণ্টায় ভারী বৃষ্টির পূর্বাভাস রয়েছে এই সাত জেলায়।

হাওয়া অফিসের তরফ থেকে জানানো হয়েছে, আগামী ২৪ ঘণ্টায় দক্ষিণবঙ্গের অধিকাংশ জেলাতেই বৃষ্টির পূর্বাভাস রয়েছে। তবে ভারী বৃষ্টির পূর্বাভাস রয়েছে বীরভূম, নদিয়া, পূর্ব ও পশ্চিম বর্ধমান, পূর্ব ও পশ্চিম মেদিনীপুর এবং ঝাড়গ্রামে। পাশাপাশি হালকা ও মাঝারি ধরনের বৃষ্টি হতে পারে উপকূলবর্তী এলাকাগুলিতে এবং কলকাতায়।

এর পাশাপাশি উত্তরবঙ্গের মালদা ও দিনাজপুরে হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। এই বৃষ্টিপাত আগামী সোমবার পর্যন্ত চলবে বলে মনে করছে হাওয়া অফিস। তামিলনাড়ু থেকে গাঙ্গেয় পশ্চিমবঙ্গ পর্যন্ত একটি অক্ষরেখার প্রভাবেই এই বৃষ্টি। এই অক্ষরেখা অন্ধ্রপ্রদেশ ও ওড়িশার উপর দিয়ে বিস্তৃত রয়েছে।

নতুন করে তৈরি হওয়া এই নিম্নচাপ আগামী দুদিন পূর্ব মধ্য ও দক্ষিণ-পূর্ব বঙ্গোপসাগরে অবস্থান করবে। এরই কারণে পূবালী হাওয়ার দাপট লক্ষ্য করা যাচ্ছে। পাশাপাশি এই নিম্নচাপের কারণে রাজ্যে নিম্নমুখী তাপমাত্রার পারদ বাধার সম্মুখীন হয়েছে। তবে মেঘ কেটে আকাশ পরিষ্কার হলেই এক ধাক্কায় তাপমাত্রার পারদ নামবে বলেই মনে করছে হাওয়া অফিস।

আলিপুর হাওয়া অফিসের তরফ থেকে জানানো হয়েছে, রবিবার দিনের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ২২.৩ ডিগ্রী, যা স্বাভাবিকের তুলনায় ২ ডিগ্রি বেশি। অন্যদিকে গত ২৪ ঘন্টায় দিনের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ২৭.৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা স্বাভাবিকের তুলনায় ৩° কম।

অন্যদিকে শ্রীনিকেতন হাওয়া অফিসের রিপোর্ট অনুযায়ী জানা যাচ্ছে, রবিবার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ১৯.৬ ডিগ্রী, যা স্বাভাবিকের তুলনায় ২ ডিগ্রি বেশি। গত ২৪ ঘন্টায় দিনের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ২২.৭ ডিগ্রী, যা স্বাভাবিকের তুলনায় ৭° কম।

হাওয়া অফিসের পূর্বাভাস থেকে জানা যাচ্ছে, দক্ষিণবঙ্গের এই সাত জেলায় আগামীকাল অর্থাৎ সোমবার পর্যন্ত এই বৃষ্টি চলবে। মঙ্গলবার থেকে আকাশ পরিষ্কার হবে এবং তাপমাত্রার পারদ নামবে। দক্ষিণবঙ্গের পশ্চিমের জেলাগুলিতে বৃষ্টির পরেই জাঁকিয়ে শীত পড়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

আরো পড়ুন