হাইকোর্টের নির্দেশ মেনে ছাত্র বিক্ষোভ উঠলো বিশ্বভারতীতে

হাইকোর্টের নির্দেশ মেনে ছাত্র বিক্ষোভ উঠলো বিশ্বভারতীতে

বিশ্বভারতীর তিন পড়ুয়া বরখাস্ত হওয়ার প্রতিবাদে ছাত্রদের একাংশ বিক্ষোভে। যে বিক্ষোভকে নিয়ে ইতিমধ্যে একাধিক ঘটনা ঘটে গিয়েছে। বিক্ষোভের জল গড়ায় হাইকোর্ট পর্যন্ত। প্রথম দফায় হাইকোর্ট উপাচার্যের বাসভবনের সামনে বিক্ষোভ করা যাবে না বলে রায় দেয়। পরবর্তীতে ছাত্ররা তাদের বিক্ষোভ মঞ্চ অন্যত্র স্থানান্তরিত করে এবং তারাও তাদের দাবি-দাওয়া নিয়ে হাইকোর্টের দ্বারস্থ হয়। সেই মামলার শুনানিতে বুধবার আদালত বিশ্বভারতীর এই তিন পড়ুয়ার বরখাস্তের উপর অন্তর্বর্তী কালীন স্থগিতাদেশ জারি করে। এর পাশাপাশি পড়ুয়াদের নির্দেশ দেওয়া হয় তাদের বিক্ষোভ মঞ্চ তুলে দেওয়ার জন্য। আদালতের নির্দেশ মোতাবেক বিশ্বভারতীর পড়ুয়ারা বৃহস্পতিবার তাদের বিক্ষোভ মঞ্চ খুলে দেওয়ার কাজ শুরু করলো এবং তাদের তরফ থেকে জানানো হলো আপাতত তারা তাদের বিক্ষোভ কর্মসূচি তুলে নিচ্ছেন। আদালতের নির্দেশ মেনে তারা এই কাজ করছেন। তবে এর পাশাপাশি আদালতের নির্দেশ মেনে বিশ্বভারতী কর্তৃপক্ষ এখনো ওই সকল পড়ুয়াদের ক্লাসে ফেরানোর জন্য কোন বিজ্ঞপ্তি জারি করেনি। এর পরিপ্রেক্ষিতে পড়ুয়ারা জানিয়েছে, বিশ্বভারতী কর্তৃপক্ষ আদালতের নির্দেশ লংঘন করছে। কারণ তারা এখনো ক্লাসে যোগ দেওয়া নিয়ে কোন বিজ্ঞপ্তি জারি করেনি।

বিশ্বভারতীর বিক্ষোভরত পড়ুয়াদের এদিন এই মঞ্চ খুলে নেওয়ার পরিপ্রেক্ষিতে দীর্ঘ ১৩ দিনের বিশ্বভারতীর পড়ুয়াদের বিক্ষোভ থামল।

আরো পড়ুন