হেতমপুরে দুঃস্থ শিশুদের বস্ত্র ও শিক্ষা সামগ্রী তুলে দিল কচিকাঁচারা

হেতমপুরে দুঃস্থ শিশুদের বস্ত্র ও শিক্ষা সামগ্রী তুলে দিল কচিকাঁচারা

সেখ ওলি মহম্মদ :-

আজ জন্মাষ্টমী। সারা দেশজুড়ে পালিত হচ্ছে দিনটি। কিন্তু বীরভূম জেলায় এক অন্য চিত্র ধরা পড়ল। গোটা দেশের মানুষ যখন জন্মাষ্টমীর পুজো নিয়ে ব্যস্ত তখন এক ঝাঁক কচিকাঁচা যাঁদের বয়স ৭-১৪ বছরের মধ্যে। তাঁরা আজ বীরভূম জেলার দুবরাজপুর ব্লকের হেতমপুর রাজ উচ্চ বিদ্যালয়ে ৩০ জন গরিব ও দুঃস্থ শিশুদের মাস্ক, স্যানিটাইজার, সাবান, নববস্ত্র ও শিক্ষা সামগ্রী দান করল। তাঁরা বয়সে ছোট হলেও মন উদার। এই বয়সে কিছু করার পরিকল্পনা রয়েছে তাদের মধ্যে। ইতিমধ্যেই ১২ জন সদস্য নিয়ে একটি সংগঠন তৈরি করেছে। যার নাম দিয়েছে মানব সেবা সংস্থা। তারা মানব সেবায় নিয়োজিত হয়ে এই পথে নেমেছে। অবশ্যই তাদের উৎসাহ প্রদান এবং সহযোগিতা করেছেন বিদ্যালয়ের কয়েকজন শিক্ষক। এদিন উপস্থিত ছিলেন এই বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক অচিন্ত্য কুমার বন্দ্যোপাধ্যায়, চন্ডীচরণ মণ্ডল, দিবাকর মিত্র, মানব সেবা সংস্থার সদস্য প্রীতম রায় সহ অন্যান্য শিক্ষক ও সদস্যারা। এদিন এই সংস্থার সদস্য প্রীতম রায় জানিয়েছে, আমরা আমাদের টিফিন খরচ বা পকেট মানি বাঁচিয়ে এই উদ্যোগ নিয়েছি। গরিব মানুষদের সাহায্য করে আমাদের খুব ভালো লাগছে। পাশাপাশি বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক অচিন্ত্য কুমার বন্দ্যোপাধ্যায় জানান, আমাদের ছাত্ররা এই যে মহান কাজ করেছে তার জন্য আমরা আজ গর্বিত। আমরা তাদেরকে যে শিক্ষা দিয়েছি পরের জন্য নিজেকে উৎসর্গ করা সেটা আজ করে দেখালো তারা। আমরা চাই ওরা আরো এগিয়ে যাক।

আরো পড়ুন