৩০ টাকার লটারিতে ১ কোটি টাকা! কি বললেন অনুব্রত মণ্ডল

৩০ টাকার লটারিতে ১ কোটি টাকা! কি বললেন অনুব্রত মণ্ডল

নিজস্ব প্রতিবেদন : সোমবার দুপুর থেকেই শোরগোল হয়ে ওঠে সোশ্যাল মিডিয়া। শোরগোল হওয়ার মূলে রয়েছেন বীরভূম জেলা তৃণমূল সভাপতি অনুব্রত মণ্ডল। মূলত ডিয়ার লটারি নামক একটি সংস্থায় লটারির টিকিটে এক কোটি টাকা পুরস্কার জেতা এবং সেই পুরস্কারের টাকা প্রদানকে কেন্দ্র করে এই শোরগোল তৈরি হয়েছে।

ডিয়ার লটারির তরফ থেকে সোমবার দুপুর একটার সময় দেখানো হয়, লটারিতে এক কোটি টাকা জেতার টাকা এমন একজন ব্যক্তিকে দেওয়া হয়েছে যার নাম অনুব্রত মণ্ডল, যিনি আবার বীরভূমের বাসিন্দা। সেই এবং ওই লটারির পুরস্কারের সঙ্গে যে ছবি রয়েছে তাও হুবহু অনুব্রত মণ্ডলের মতই। এরপর থেকেই এই ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়।

ডিয়ার লটারির তরফ থেকে যে টিকিট কেটে অনুব্রত মণ্ডল এই এক কোটি টাকা জিতেছেন তার দাম সম্পর্কে যা প্রকাশ করা হয়েছে, তা থেকে জানা যাচ্ছে ওই টিকিটটির মূল্য ৩০ টাকা। পাঁচ সিরিজের টিকিট, যার এক একটির মূল্য হল ৬ টাকা। অনুব্রত মণ্ডলের এক কোটি টাকা জেতার খবরটি সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়।

এখন প্রশ্ন হল সত্যিই কি অনুব্রত মণ্ডল লটারিতে এক কোটি টাকা জিতলেন? এক্ষেত্রে বলা যেতে পারে একই জায়গায় একই ব্যক্তির নামে দুই বা ততোধিক ব্যক্তি থাকতে পারেন। কিন্তু ওই লটারি সংস্থার তরফ থেকে যেভাবে ছবি সহ লটারির টিকিটের ফলাফল প্রকাশ করেছে তাতে স্পষ্ট ওই ছবিটি বীরভূম জেলা তৃণমূল সভাপতি অনুব্রত মণ্ডলেরই।

অন্যদিকে সোমবার বীরভূম জেলা তৃণমূল সভাপতি মহঃবাজারে আয়োজিত জঙ্গলমহল উৎসবে অংশগ্রহণ করতে যান। সেখানে অনুষ্ঠান শেষে তিনি সাংবাদিকদের মুখোমুখি হলে তাকে এই বিষয়টি জিজ্ঞাসা করা হয়। প্রশ্ন করা হয়, ‘বিভিন্ন সোশ্যাল মিডিয়ায় দেখা যাচ্ছে আপনার এক কোটি টাকার পাওয়ার খবর ঘুরে বেড়াচ্ছে?’ এই প্রশ্নের উত্তরে অনুব্রত মণ্ডল জানান, ‘ওটা পরে! ওটা বাদ দিয়ে কিছু বলার থাকলে বলতে পারেন’।

এর পাশাপাশি বোলপুরের যে দোকান বা এজেন্সির মারফতে ওই লটারি টিকিট বিক্রি হয়েছে বলে জানা গিয়েছে সেই এজেন্সির মালিক রঞ্জিত ধীবর জানিয়েছেন, “আমার দোকানে গত ডিসেম্বর মাসের ৭ তারিখ প্রথম পুরস্কার লেগেছিল। আমি একজন ডিলার। আমার কাছ থেকে অনেকেই টিকিট কিনে নিয়ে যান এবং সেগুলি তারা বিক্রি করেন। সেই মত একজন বয়স্ক লোক আমার কাছ থেকে টিকিট কিনে নিয়ে গিয়েছিলেন এবং তা বিক্রি করেছিলেন। সেই টিকিটেই এই পুরস্কার লেগেছিল। কিন্তু কে সেই টিকিট কিনেছিলেন তা আমি বলতে পারব না।”

বীরভূম জেলা তৃণমূল সভাপতি অনুব্রত মণ্ডলের এই মন্তব্যের পরিপ্রেক্ষিতে স্পষ্ট নয় তিনি সত্যিই লটারি টিকিট এক কোটি টাকা জিতেছেন কিনা? তবে এই বিষয়ে জানতে হলে হয়তো আমাদের আরও কিছুটা সময় অপেক্ষা করতে হবে।

আরো পড়ুন