৫১০০ কনস্টেবল নিয়োগ, ঘোষণা খোদ মুখ্যমন্ত্রীর

৫১০০ কনস্টেবল নিয়োগ, ঘোষণা খোদ মুখ্যমন্ত্রীর

নিজস্ব প্রতিবেদন : বীরভূমের মহঃ বাজার ব্লকের অন্তর্গত ডেউচা পাচামি এলাকায় সত্ত্বর কয়লা উত্তোলনের কাজ শুরু করার জন্য তৎপরতা শুরু করেছে রাজ্য সরকার। ইতিমধ্যেই এই এলাকার জন্য বিপুল পরিমাণ আর্থিক প্যাকেজ ঘোষণা করা হয়েছে। আর এবার এর পাশাপাশি জুনিয়ার এবং সিনিয়র কনস্টেবল পদে নিয়োগের জন্য শূন্যপদ ঘোষণা করলেন খোদ মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

ডেউচা পাচামি এলাকায় প্রথম পর্যায়ে সরকারি জমিতে কয়লা উত্তোলনের কাজ শুরু হবে। সরকারি জমিতে এই কয়লা উত্তোলনের কাজ শুরু হওয়ার পাশাপাশি স্থানীয় বাসিন্দারাও জমি দিতে আগ্রহ প্রকাশ করেছেন। যারা সদিচ্ছায় জমি দেবেন তাদের সরকারি চাকরি, পুনর্বাসন এবং আর্থিক ক্ষতিপূরণ সহ আরও একাধিক সুবিধা দেওয়ার কথা বলা হয়েছে।

এর পাশাপাশি সোমবার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নবান্নে সাংবাদিক বৈঠক করার সময় জানান, সদিচ্ছায় সরকারকে যারা এই প্রকল্পের জন্য জমি দেবেন তাদের পরিবার পিছু একজনকে সরকারি চাকরি দেওয়া হবে। এর জন্য ৫১০০ শূন্যপদ তৈরি করার ক্ষেত্রে অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। ‘রিলাক্সশেসন টু রিক্রুটমেন্ট রুলস ফর অ্যাপয়েন্টমেন্ট ওয়ান মেম্বার অফ ইচ অফ দ্য ফ্যামিলি’ এই সকল শূন্য পদের জন্য অনুমোদন দিয়েছে।

মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কথা অনুযায়ী, “যদিও প্রথম কাজটা সরকারি জমিতেই হবে। যাঁরা রাজি হবেন তাঁদের জমিই নেওয়া হবে। আমাদের হাতে জমি রয়েছে এক হাজার একরের মতো। সুতরাং আমাদের জমিতেই কাজটা শুরু করব। যেহেতু লোকাল ছেলেমেয়দের সার্পোট আমাদের দরকার, তাই আমরা ৫১০০ জুনিয়র বা সিনিয়র কনস্টেবল নেব, যাঁরা জমি দিতে চান তাঁদের পরিবার থেকে।”

জানা গিয়েছে, ইতিমধ্যেই এই প্রকল্পের জন্য ১৩৯টি পরিবার সরকারকে সদিচ্ছায় জমি দিতে সম্মতি প্রকাশ করেছেন। এক্ষেত্রে এই সকল পরিবারের এক একজন সদস্যকে এই সকল সরকারী পদে নিয়োগ করা হবে। অন্যদিকে ডেউচা পাচামি কয়লা শিল্প গড়ে তোলার পাশাপাশি রাজ্য সরকার এই এলাকায় অনুসারী শিল্প হিসাবে বস্ত্র শিল্প, মোটর শিল্প ইত্যাদি তৈরি করার পরিকল্পনা গ্রহণ করছে।

আরো পড়ুন