৫ দিনের তল্লাশি! তিলপাড়ায় ভেসে উঠলো মৃতদেহ

৫ দিনের তল্লাশি! তিলপাড়ায় ভেসে উঠলো মৃতদেহ

নিজস্ব প্রতিবেদন : নিখোঁজ এক যুবকের খোঁজে গত রবিবার থেকে তল্লাশি শুরু হয় বীরভূমের সিউড়ি থানার অন্তর্গত তিলপাড়া জলাধারে। দিন কয়েকের তল্লাশির পর বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ছ’টা নাগাদ স্থানীয় বাসিন্দারা একটি মৃতদেহ ময়ূরাক্ষী নদীর জলে ভেসে উঠছে দেখেন।

জলে মৃতদেহ ভাসতে দেখে স্থানীয় বাসিন্দারা সিউড়ি থানার পুলিশকে খবর দিলে ঘটনাস্থলে পৌঁছায় এবং দমকল বাহিনী। পুলিশ এবং দমকল বাহিনীর সহযোগিতায় ওই মৃতদেহ উদ্ধার করে নিয়ে আসা হয়েছে সিউড়ি সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালে ময়না তদন্তের জন্য। পাশাপাশি ময়ূরাক্ষী নদীর জলাধারে উদ্ধার হওয়া ওই মৃতদেহ নিখোঁজ যুবকের মৃতদেহই কিনা তার পরিপ্রেক্ষিতে চলছে শনাক্তকরণের কাজ।

ঘটনার সূত্রপাত গত সপ্তাহের শনিবার। যেদিন থেকে সিউড়ির ডাঙ্গালপাড়ার এক যুবকের কোন খোঁজ পাওয়া যাচ্ছিল না। এরপর রবিবার ওই যুবকের মোটরবাইক, জ্যাকেট, মোবাইল, মানিব্যাগ তিলপাড়া জলাধারের কাছে দেখা যায়। স্থানীয় বাসিন্দা এবং পুলিশের অনুমানের পরিপ্রেক্ষিতে ময়ূরাক্ষী নদীর ওই জলাধারে শুরু হয় তল্লাশি।

রবিবার সকাল থেকে এলাকার বিভিন্ন জায়গায় চিরুনি তল্লাশির পর দুপুর থেকে নামানো হয় স্পিডবোট। দীর্ঘক্ষণ ধরে তল্লাশি চালানো হলেও কিছু মেলেনি। এরপর পরবর্তীতে নামানো হয় ডুবুরি, কিন্তু তাতেও কোনো কিছুর লক্ষ্য করা যায়নি।

এসবের এরপরই বৃহস্পতিবার সকালে ময়ূরাক্ষী নদীর তিলপাড়ার মূল ব্যারেজ থেকে বেশ কিছুটা দূরে এই মৃতদেহটি জলে ভাসতে দেখেন স্থানীয় বাসিন্দারা। এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে দিন কয়েক ধরেই চাঞ্চল্য তৈরি হয়েছে এলাকায়।

অন্যদিকে এদিন মৃতদেহ উদ্ধার হওয়ার পর শান্তি রঞ্জন ভৌমিক নামে এক ব্যক্তি জানিয়েছেন, “পাঁচ দিন ধরে খোঁজ চলানোর পর আজ একটি বডি পাওয়া গেল তিলপাড়া জলাধারে। মনে হচ্ছে সেই বডিটাই। ওর বাবার সঙ্গে কথা হয়েছে, উনি জানিয়েছেন, হ্যাঁ।”

আরো পড়ুন